নন্দলালপুর সুমা স্টিল মিলের বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি, জনমনে ক্ষোভ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সাদ্দাম হোসেন শুভ: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানাধীন পাগলা নন্দলালপুর ‘সুমা স্টিল রি-রোলিং’ মিলের কালো ধোঁয়া গিলে খাচ্ছে এলাকাবাসীকে। এই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মারাত্মক কালো ধোঁয়া ছড়ানোর অভিযোগ থাকলেও বন্ধ করা যাচ্ছে না চরম এই পরিবেশ দূষণ। বিষাক্ত কালো ধোঁয়ার কারণে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে এলাকাবাসী। এ অবস্থায় স্থানীয় জনমনে চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে এ ধরনের পরিবেশে থাকলে মানুষের শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।একই সাথে ফুসফুস, কিডনি জটিলতা, হৃদরোগ, শ্বাসযন্ত্রের প্রদাহ, নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিস রোগের প্রচন্ড ঝুঁকিও অনেক বৃদ্ধি পায়। দূষণ এলাকার স্থানীয় লোকজন একজিমা, হাঁপানি, আমাশয় এবং ম্যালেরিয়া রোগে ভুগছেন।

 

সরেজমিন দেখা গেছে, পাগলা নন্দলালপুর এলাকায় মেডিকেল সংলগ্ন সুমা স্টিল রি-রোলিং মিল থেকে প্রতিদিন সকাল ১১ টার দিকে কালো ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে যায় পাগলা নন্দলালপুর শিল্প এলাকা। রাতের আধারে কালো ধোঁয়ার মাত্রা আরো বেশি। তখন কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় পুরো এলাকা। বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকরা নাক চেপে চলাচল করছেন। আশপাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই পথ দিয়ে বাসায় ফিরছে। এভাবে দিনের পর দিন পরিবেশের ক্ষতি করে উৎপাদন করছে কোটি কোটি টাকার রড।

 

পরিবেশ অধিদপ্তর কর্মকর্তা বলেন, যারা পরিবেশ দূষণ করবে বা পরিবেশ দূষণের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে পরিবেশ আইনে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর দূষণকারীদের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ প্রদানের জন্য এলাকাবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান। তাহলে সাথে সাথে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এলাকাবাসী ও কারখানার শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সকাল ১১টার পর থেকে কারখানার ধোঁয়ায় পুরো এলাকা অন্ধকার হয়ে যায়। বিকাল হলে এসব কারখানার ধোঁয়া আরো ব্যাপক আকার ধারণ করে। আর রাতে ধারণ করে মারাত্মক আকার। মনে হয় শীতকালের কুয়াশায় আচ্ছন্ন নগরী। ধোঁয়ার কারণে চোখ জ্বালাপোড়া করে। আর নাক দিয়ে পানি পড়ে। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার মত কেউ নেই।

 

চিকিৎসকদের মতে, কালো ধোঁয়ায় থাকা বস্তুকণা ও সালফার ডাই-অক্সাইডের প্রভাবে ফুসফুস, কিডনি জটিলতা ও হৃদরোগের প্রচন্ড ঝুঁকি রয়েছে। এছাড়া নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড ও সিসার কারণে শ্বাসযন্ত্রের প্রদাহ, নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিসের ঝুঁকি দেখা দেয় এবং ব্যাহত হয় শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ। এসব বিষাক্ত ধোঁয়া মানুষের শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে দেহের ভেতর ঢুকে পড়ছে। এভাবে কালো ধোঁয়ার সাথে বস্তুকণা, সালফার ডাই-অক্সাইড ও নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড, সিসাসহ অন্যান্য ক্ষতিকর উপাদান বাতাসে ছড়িয়ে পড়ছে। এভাবে নারায়ণগঞ্জের বাতাস দ্রুত দূষিত হচ্ছে। ফলে কুতুবপুরের নন্দলালপুর, নয়ামাটি, দেলপাড়া, পাগলা, আলীগঞ্জ, পিলকুনীর মতো শিল্প এলাকার বাতাস সব সময় বেশি দূষিত থাকে। এর জন্য দায়ি কলকারখানার কালো ধোঁয়া।

 

এ বিষয়ে একাধিক শিক্ষাবিদ বলেন, নন্দলালপুর এলাকায় যেসব কল-কারখানা থেকে ধোঁয়া বের হয়, তা অবশ্যই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। যে মাত্রায় ধোঁয়া নির্গত হয়, তা কমানোর জন্য তেমন একটা ব্যবস্থা আমাদের নেই। এসব জায়গাগুলোকে বলা হয় ‘হিট হট স্পট’। এসব জায়গা চিহ্নিত করার জন্য আমরা একটা গবেষণা কাজ করেছি। তার মধ্যে কুতুবপুরের কিছু এলাকাটা অন্যতম। কালো ধোঁয়ার কারণে মানবদেহে স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এমন পরিবেশে থাকলে শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।

 

বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরে দৃষ্টি আকর্ষন করে নন্দলালপুর এলাকাবাসী বলেন, আমাদের এলাকার সবাইকে সুমা স্টিল রি-রোলিং মিলের বিষাক্ত কালো ধোয়া থেকে বাচাতে অতি শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহন করতে পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

 

(সুমা স্টিল রি-রোলিং মিলের পরিবেশ দূষণের আরো প্রতিবেদন দেখতে আমাদের সাথেই থাকুন)

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» আমতলীতে বিয়ের হাইএক্স মাইক্রোসসহ সেতু ধসে খালে ৯জনের লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ৩

» আমতলীতে ছাগলে ধানগাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ৫!

» আমতলীতে খাদ্যদ্রব্যে বিষাক্ত কাপড়ের রং ব্যবহারে হোটেল মালিককে জরিমানা!

» ঈদকে সামনে রেখে বেনাপোলে ব্যাংক কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ীদের সাথে পুলিশের আলোচনা সভা

» আমতলীতে ঘরের দলিল ও চাবি পেল ১০০ ভূমিহীন পরিবার

» শিক্ষকদের অনুপুস্থিতি আর অবহেলায় চলছে পাগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

» ছিনতাই মামলার আসামী অমল এখন মাসদাইর পৌর শ্মশানের ডোম!

» ফতুল্লায় গ্যাস সংকট নিরসনে মানববন্ধন

» আমতলীতে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন!

» শার্শায় স্থানীয় সম্পদ আহরণ ও ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণ

সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

প্রকাশক : মো: আবদুল মালেক
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৬৭৪-৬৩২৫০৯, ০১৯১৮-১৭৮৬৫৯

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, খ্রিষ্টাব্দ, ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নন্দলালপুর সুমা স্টিল মিলের বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি, জনমনে ক্ষোভ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

সাদ্দাম হোসেন শুভ: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানাধীন পাগলা নন্দলালপুর ‘সুমা স্টিল রি-রোলিং’ মিলের কালো ধোঁয়া গিলে খাচ্ছে এলাকাবাসীকে। এই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মারাত্মক কালো ধোঁয়া ছড়ানোর অভিযোগ থাকলেও বন্ধ করা যাচ্ছে না চরম এই পরিবেশ দূষণ। বিষাক্ত কালো ধোঁয়ার কারণে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে এলাকাবাসী। এ অবস্থায় স্থানীয় জনমনে চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে এ ধরনের পরিবেশে থাকলে মানুষের শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।একই সাথে ফুসফুস, কিডনি জটিলতা, হৃদরোগ, শ্বাসযন্ত্রের প্রদাহ, নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিস রোগের প্রচন্ড ঝুঁকিও অনেক বৃদ্ধি পায়। দূষণ এলাকার স্থানীয় লোকজন একজিমা, হাঁপানি, আমাশয় এবং ম্যালেরিয়া রোগে ভুগছেন।

 

সরেজমিন দেখা গেছে, পাগলা নন্দলালপুর এলাকায় মেডিকেল সংলগ্ন সুমা স্টিল রি-রোলিং মিল থেকে প্রতিদিন সকাল ১১ টার দিকে কালো ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে যায় পাগলা নন্দলালপুর শিল্প এলাকা। রাতের আধারে কালো ধোঁয়ার মাত্রা আরো বেশি। তখন কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় পুরো এলাকা। বিভিন্ন কারখানার শ্রমিকরা নাক চেপে চলাচল করছেন। আশপাশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই পথ দিয়ে বাসায় ফিরছে। এভাবে দিনের পর দিন পরিবেশের ক্ষতি করে উৎপাদন করছে কোটি কোটি টাকার রড।

 

পরিবেশ অধিদপ্তর কর্মকর্তা বলেন, যারা পরিবেশ দূষণ করবে বা পরিবেশ দূষণের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে পরিবেশ আইনে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর দূষণকারীদের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ প্রদানের জন্য এলাকাবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান। তাহলে সাথে সাথে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এলাকাবাসী ও কারখানার শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সকাল ১১টার পর থেকে কারখানার ধোঁয়ায় পুরো এলাকা অন্ধকার হয়ে যায়। বিকাল হলে এসব কারখানার ধোঁয়া আরো ব্যাপক আকার ধারণ করে। আর রাতে ধারণ করে মারাত্মক আকার। মনে হয় শীতকালের কুয়াশায় আচ্ছন্ন নগরী। ধোঁয়ার কারণে চোখ জ্বালাপোড়া করে। আর নাক দিয়ে পানি পড়ে। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার মত কেউ নেই।

 

চিকিৎসকদের মতে, কালো ধোঁয়ায় থাকা বস্তুকণা ও সালফার ডাই-অক্সাইডের প্রভাবে ফুসফুস, কিডনি জটিলতা ও হৃদরোগের প্রচন্ড ঝুঁকি রয়েছে। এছাড়া নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড ও সিসার কারণে শ্বাসযন্ত্রের প্রদাহ, নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিসের ঝুঁকি দেখা দেয় এবং ব্যাহত হয় শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ। এসব বিষাক্ত ধোঁয়া মানুষের শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে দেহের ভেতর ঢুকে পড়ছে। এভাবে কালো ধোঁয়ার সাথে বস্তুকণা, সালফার ডাই-অক্সাইড ও নাইট্রোজেন ডাই-অক্সাইড, সিসাসহ অন্যান্য ক্ষতিকর উপাদান বাতাসে ছড়িয়ে পড়ছে। এভাবে নারায়ণগঞ্জের বাতাস দ্রুত দূষিত হচ্ছে। ফলে কুতুবপুরের নন্দলালপুর, নয়ামাটি, দেলপাড়া, পাগলা, আলীগঞ্জ, পিলকুনীর মতো শিল্প এলাকার বাতাস সব সময় বেশি দূষিত থাকে। এর জন্য দায়ি কলকারখানার কালো ধোঁয়া।

 

এ বিষয়ে একাধিক শিক্ষাবিদ বলেন, নন্দলালপুর এলাকায় যেসব কল-কারখানা থেকে ধোঁয়া বের হয়, তা অবশ্যই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। যে মাত্রায় ধোঁয়া নির্গত হয়, তা কমানোর জন্য তেমন একটা ব্যবস্থা আমাদের নেই। এসব জায়গাগুলোকে বলা হয় ‘হিট হট স্পট’। এসব জায়গা চিহ্নিত করার জন্য আমরা একটা গবেষণা কাজ করেছি। তার মধ্যে কুতুবপুরের কিছু এলাকাটা অন্যতম। কালো ধোঁয়ার কারণে মানবদেহে স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এমন পরিবেশে থাকলে শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে।

 

বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরে দৃষ্টি আকর্ষন করে নন্দলালপুর এলাকাবাসী বলেন, আমাদের এলাকার সবাইকে সুমা স্টিল রি-রোলিং মিলের বিষাক্ত কালো ধোয়া থেকে বাচাতে অতি শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহন করতে পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

 

(সুমা স্টিল রি-রোলিং মিলের পরিবেশ দূষণের আরো প্রতিবেদন দেখতে আমাদের সাথেই থাকুন)

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

প্রকাশক : মো: আবদুল মালেক
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৬৭৪-৬৩২৫০৯, ০১৯১৮-১৭৮৬৫৯

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD