পাগলায় অপকর্মের স্বর্গরাজ্যর আমির ও তুতলা বিল্লাল’র খুঁটির জোড় কোথায়!

  • উজ্জীবিত বাংলাদেশ রিপোর্ট :- চাঁদাবাজী মামলায় জেল থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে পাগলার নব্য মাস্তান আমির হোসেন ও তার সহযোগী নয়ামাটি এলাকার বিভিন্ন অপরাধজনক কর্মকান্ডের মুল হোতা তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী । তারা ফতুল্লার পাগলা বাজার বহুমূখি সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ-আলম গাজী টেনু বাহিনীর অন্যতম বহিরাগত ক্যাডার হিসেবে কাজ করে থাকেন।

 

পাগলার নয়ামাটি এলাকায় খোজ নিয়ে জানা যায় আব্দুল মান্নান এর ছেলে তুতলা বিল্লালের অপরাধের বিভিন্ন তথ্য। কিছুদিন পূর্বে বিল্লালের বিরুদ্ধে নয়ামাটি এলাকায় চাদাঁ না দেওয়ায় অসহায় সংখ্যালঘু অঞ্জণা রানী নামের এক মহিলার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লুটের অভিযোগ । কয়েক মাস আগে নারায়ণগঞ্জ সহ ঢাকা থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল এবং অসংখ্য সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল তুতলা বিল্লালের কুকর্মের চিত্র। নয়ামাটি এলাকার নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন কিছুদিন আগে তাদের গনিষ্ঠ আত্মীয়র বাসার গেইট উপরে সিমেন্ট দিয়ে নির্মাণাধীন ছাদের বেশ কিছু অংশ একজন ৩/৪ বছরের শিশুর বাচ্চার উপরে ভেঙে পরে শরীলের বিভিন্ন স্থানের মাংস  সহ হাড্ডি ভেঙে যায়।

 

পরে সেই ছেলের বাবা তাদের কাছে চিকিৎসার ক্ষতিপূরণ দাবী করে। পরদিন শিশু ছেলের বাবাকে তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী দিয়ে বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে অসহায় গরিব ব্যক্তিকে এলাকা থেকে রাতারাতি বাহির করে দেওয়া হয়। এখনো সেই অবুঝ শিশুটি অল্প কিছু টাকার জন্য চিকিৎসা করার অভাবে দুটি পাঁয়ে হাটতে পারছেন না।

 

এখনো তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনীর অনেকেই অসহায় ছেলেটির বাবাকে প্রতিনিয়ত মোবাইলের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে বলে, “আমাদের বিরুদ্ধে কিছুই করতে পারবি না”। বিল্লাল এইবলেও হুমকি প্রদান করে থাকেন “যদি কোনো ধরনের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কানে বিষয়টি দেওয়ার চেষ্টা করেন তাহলে সবাইকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি প্রদান করে থাকেন ।

 

তুতলা বিল্লালের বিশাল ক্ষমতার ভয়ে পাঁ হারানো সেই ছেলের পরিবারের কেউ মুখ খোলতে রাজি হয় না। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপকর্মের লিখিত অভিযোগ থানায় দায়ের করলেও কোনো এক ক্ষমতাবাণ ব্যক্তির অদৃশ্য ইশারায় সকল অপকর্মের পাড়পেয়ে যায় বলেও স্থানীয় ব্যক্তিদের অভিযোগ ।

 

শুধু এখানেই শেষ নয় তুতলা বিল্লালের অপকর্ম বেশ কিছু দিন আগে বৌ বাজার এলাকার টাইগার নামের এক যুবকে মাদক ব্যবসায়ী বানিয়ে ১ লাখ টাকা দাবী করে বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী। তাদের দাবীকৃত ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিতে রাজি না হওয়ায় সেই যুবককে প্রাণে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে শরীলের প্রতিটি স্থানের চামড়া কেটে লবণ ছিটিয়ে গায়ের উপর দেওয়া হয়। পরে টাইগার বাদী হয়ে তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনীর বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

পরে সেই অভিযোগের বিত্তিতে তুতলা বিল্লাল কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যাওয়া মাত্র কোনো এক ক্ষমতাবাণ ব্যক্তির অদৃশ্য ইশায় বিল্লাল কে ছেড়ে দিতে বাদ্ধ হয় প্রশাসন। সমাজের অভিভাবক মহলের অনেকেই বলেন, তাদের বিরুদ্ধে নানা অপকর্মের অভিযোগ থাকা সত্যেও বিশেষ করে পাগলা ও নয়ামাটি এলাকায় তারা দিব্বি চাদাঁবাজী, জুলুম, অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত স্থায়ী বাসিন্দারা।

 

মাদক ব্যবসায়ীর তকমাও রয়েছে এই চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) ফতুল্লার পাগলা এলাকায় অভিযুক্ত চাঁদাবাজ টেনু ও তার বাহিনীর সদস্য আমীর ও তুতলা বিল্লাল সহ অন্যান্যরা চাঁদার দাবীতে মাল্টিপারপাস কোম্পানীর সিইও’সহ তিন সহোদরকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। ওই ঘটনায় টেনু গ্রেফতারের পর গত ১৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে পাগলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই সন্ত্রাসী আমির কে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

 

ওই মামলায় ক’দিন আগেই জামিনে বেড়িয়ে আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে আমির ও তার সহযোগী তুতলা বিল্লাল ও তাদের ক্যাডার বাহিনী ।

 

এবার পাগলায় হকারদের কাছ থেকে জোরপূর্বক চাঁদা উত্তোলনে মেতেছে এই চাঁদাবাজেরা। এমন অভিযোগ করেছেন ভুক্তভুগিরা। সূত্র জানায়, সম্প্রতি সন্ত্রাসী আমির ও তুতলা বিল্লালসহ তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত একাধিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও স্থানীয় পত্রপত্রিকায় বস্তুনিষ্ট সংবাদ প্রকাশিত হয়। তেমনি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ নারায়ণগঞ্জ.কম-এ একই সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর জেরে সন্ত্রাসী আমির সংবাদ নারায়ণগঞ্জ.কম এর সম্পাদক দুলাল আহমেদ এবং তার স্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন ভ‚য়া আইডির মাধ্যমে একাধিক অসামাজিক মন্তব্য করে সামাজিক ভাবে হেয় করার পন্থা অবলম্বন করে।

 

এর প্রেক্ষিতে থানায় আইসিটি আইনে জি.ডিও করেন সাংবাদিক দুলাল। তাদের বিভিন্ন অপকর্ম ডাকতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমির ও তুতলা বিল্লালের সহযোগীদের রয়েছে অসংখ্য ফেসবুক ফেক আইডি। যদি কারও মাধ্যমে তাদের অপকর্মেের বিরুদ্ধে কিছু প্রকাশিত হয়ে থাকে। তাহলে তাদের বিভিন্ন ফেসবুক ফেক আইডি ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে থাকে তারা। এবংকি সাংবাদিকদের বিরুদ্ধেও অপপ্রচার করে থাকেন তারা।

Facebook Comments

সর্বশেষ সংবাদ



» গলাচিপায় দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে দুটি দোকান পুড়ে ছাই, ২৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি

» ৩ দিন পর বান্দরবানে নিখোঁজ নারীর শ্রমিকের লাশ চকরিয়ার মানিকপুর থেকে উদ্ধার

» রাবির প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে শুরু

» রাঙ্গাবালীর গহিনখালি ব্রিজ এখন মরণফাঁদ দ্রুত সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

» পর্যটন পিপাসুদের জন্য নিরাপত্তা ও সুযোগ সুবিধা প্রয়োজন

» সিদ্ধিরগঞ্জে ১৪ মামলার আসামী শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মুন্না গ্রেফতার

» ডিএনডি খাল পুনঃখনন ও রাস্তার পাড় সৌন্দর্য বর্ধন কাজের পরিদর্শনে মেয়র আইভী

» গোল্ডকাপ ফুটবল প্রতিযোগীতা ২০১৯ বিজয়ী বেনাপোল পৌরসভা একাদশ

» এবার ঝিনাইদহ জেলার শ্রেষ্ঠ পুলিশ সার্জেন্ট নির্বাচিত মোঃ শাহারিয়ার ইসলাম

» চার বছর চাকরী করার পর শহ আলম জানলো তার চাকরী নেই !




প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ

বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

Info@ujjibitobd.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯,

বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, খ্রিষ্টাব্দ, ১লা আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাগলায় অপকর্মের স্বর্গরাজ্যর আমির ও তুতলা বিল্লাল’র খুঁটির জোড় কোথায়!

  • উজ্জীবিত বাংলাদেশ রিপোর্ট :- চাঁদাবাজী মামলায় জেল থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে পাগলার নব্য মাস্তান আমির হোসেন ও তার সহযোগী নয়ামাটি এলাকার বিভিন্ন অপরাধজনক কর্মকান্ডের মুল হোতা তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী । তারা ফতুল্লার পাগলা বাজার বহুমূখি সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ-আলম গাজী টেনু বাহিনীর অন্যতম বহিরাগত ক্যাডার হিসেবে কাজ করে থাকেন।

 

পাগলার নয়ামাটি এলাকায় খোজ নিয়ে জানা যায় আব্দুল মান্নান এর ছেলে তুতলা বিল্লালের অপরাধের বিভিন্ন তথ্য। কিছুদিন পূর্বে বিল্লালের বিরুদ্ধে নয়ামাটি এলাকায় চাদাঁ না দেওয়ায় অসহায় সংখ্যালঘু অঞ্জণা রানী নামের এক মহিলার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লুটের অভিযোগ । কয়েক মাস আগে নারায়ণগঞ্জ সহ ঢাকা থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল এবং অসংখ্য সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল তুতলা বিল্লালের কুকর্মের চিত্র। নয়ামাটি এলাকার নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন কিছুদিন আগে তাদের গনিষ্ঠ আত্মীয়র বাসার গেইট উপরে সিমেন্ট দিয়ে নির্মাণাধীন ছাদের বেশ কিছু অংশ একজন ৩/৪ বছরের শিশুর বাচ্চার উপরে ভেঙে পরে শরীলের বিভিন্ন স্থানের মাংস  সহ হাড্ডি ভেঙে যায়।

 

পরে সেই ছেলের বাবা তাদের কাছে চিকিৎসার ক্ষতিপূরণ দাবী করে। পরদিন শিশু ছেলের বাবাকে তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী দিয়ে বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে অসহায় গরিব ব্যক্তিকে এলাকা থেকে রাতারাতি বাহির করে দেওয়া হয়। এখনো সেই অবুঝ শিশুটি অল্প কিছু টাকার জন্য চিকিৎসা করার অভাবে দুটি পাঁয়ে হাটতে পারছেন না।

 

এখনো তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনীর অনেকেই অসহায় ছেলেটির বাবাকে প্রতিনিয়ত মোবাইলের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে বলে, “আমাদের বিরুদ্ধে কিছুই করতে পারবি না”। বিল্লাল এইবলেও হুমকি প্রদান করে থাকেন “যদি কোনো ধরনের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কানে বিষয়টি দেওয়ার চেষ্টা করেন তাহলে সবাইকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি প্রদান করে থাকেন ।

 

তুতলা বিল্লালের বিশাল ক্ষমতার ভয়ে পাঁ হারানো সেই ছেলের পরিবারের কেউ মুখ খোলতে রাজি হয় না। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপকর্মের লিখিত অভিযোগ থানায় দায়ের করলেও কোনো এক ক্ষমতাবাণ ব্যক্তির অদৃশ্য ইশারায় সকল অপকর্মের পাড়পেয়ে যায় বলেও স্থানীয় ব্যক্তিদের অভিযোগ ।

 

শুধু এখানেই শেষ নয় তুতলা বিল্লালের অপকর্ম বেশ কিছু দিন আগে বৌ বাজার এলাকার টাইগার নামের এক যুবকে মাদক ব্যবসায়ী বানিয়ে ১ লাখ টাকা দাবী করে বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনী। তাদের দাবীকৃত ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিতে রাজি না হওয়ায় সেই যুবককে প্রাণে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে শরীলের প্রতিটি স্থানের চামড়া কেটে লবণ ছিটিয়ে গায়ের উপর দেওয়া হয়। পরে টাইগার বাদী হয়ে তুতলা বিল্লাল ও তার ক্যাডার বাহিনীর বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

পরে সেই অভিযোগের বিত্তিতে তুতলা বিল্লাল কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যাওয়া মাত্র কোনো এক ক্ষমতাবাণ ব্যক্তির অদৃশ্য ইশায় বিল্লাল কে ছেড়ে দিতে বাদ্ধ হয় প্রশাসন। সমাজের অভিভাবক মহলের অনেকেই বলেন, তাদের বিরুদ্ধে নানা অপকর্মের অভিযোগ থাকা সত্যেও বিশেষ করে পাগলা ও নয়ামাটি এলাকায় তারা দিব্বি চাদাঁবাজী, জুলুম, অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত স্থায়ী বাসিন্দারা।

 

মাদক ব্যবসায়ীর তকমাও রয়েছে এই চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) ফতুল্লার পাগলা এলাকায় অভিযুক্ত চাঁদাবাজ টেনু ও তার বাহিনীর সদস্য আমীর ও তুতলা বিল্লাল সহ অন্যান্যরা চাঁদার দাবীতে মাল্টিপারপাস কোম্পানীর সিইও’সহ তিন সহোদরকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। ওই ঘটনায় টেনু গ্রেফতারের পর গত ১৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে পাগলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই সন্ত্রাসী আমির কে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

 

ওই মামলায় ক’দিন আগেই জামিনে বেড়িয়ে আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে আমির ও তার সহযোগী তুতলা বিল্লাল ও তাদের ক্যাডার বাহিনী ।

 

এবার পাগলায় হকারদের কাছ থেকে জোরপূর্বক চাঁদা উত্তোলনে মেতেছে এই চাঁদাবাজেরা। এমন অভিযোগ করেছেন ভুক্তভুগিরা। সূত্র জানায়, সম্প্রতি সন্ত্রাসী আমির ও তুতলা বিল্লালসহ তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত একাধিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও স্থানীয় পত্রপত্রিকায় বস্তুনিষ্ট সংবাদ প্রকাশিত হয়। তেমনি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ নারায়ণগঞ্জ.কম-এ একই সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর জেরে সন্ত্রাসী আমির সংবাদ নারায়ণগঞ্জ.কম এর সম্পাদক দুলাল আহমেদ এবং তার স্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে বিভিন্ন ভ‚য়া আইডির মাধ্যমে একাধিক অসামাজিক মন্তব্য করে সামাজিক ভাবে হেয় করার পন্থা অবলম্বন করে।

 

এর প্রেক্ষিতে থানায় আইসিটি আইনে জি.ডিও করেন সাংবাদিক দুলাল। তাদের বিভিন্ন অপকর্ম ডাকতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমির ও তুতলা বিল্লালের সহযোগীদের রয়েছে অসংখ্য ফেসবুক ফেক আইডি। যদি কারও মাধ্যমে তাদের অপকর্মেের বিরুদ্ধে কিছু প্রকাশিত হয়ে থাকে। তাহলে তাদের বিভিন্ন ফেসবুক ফেক আইডি ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে থাকে তারা। এবংকি সাংবাদিকদের বিরুদ্ধেও অপপ্রচার করে থাকেন তারা।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ

বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

Info@ujjibitobd.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯,

বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD