ঝড় মানেই আম কুড়ানোর দিন

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

কুষ্টিয়া থেকে, হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ফিচার রিপোর্টার: গ্রামে ঝড় এলেই আম বাগানে ছুট। শুরু আম কুড়ানোর প্রতিযোগিতা।

 

সে প্রতিযোগিতায় কে ছোট কে বড় তার কোনো ফারাক নেই। সবার একদিকেই ঝোঁক- তাহলো আম কুড়ানো।
আমবাগানে খুব বাতাসে গাছ থেকে টুপ করে যে আম পড়ে, সবাই মিলে সেই আম খোঁজা। খুঁজে পেলে শুরু কার আগে কে কুড়াতে পারে তা। এ যেন এক অনন্য সুন্দর আনন্দ।

 

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে হঠাৎ ঝড় শুরু হলে দেখা গেল সেই দৃশ্য। বিশেষ করে কুষ্টিয়ার মিরপুরে ঝড় শুরুর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই একটি আম বাগানে ভিড় জমে শিশু-কিশোরসহ সব বয়সী মানুষের।

এ সময় নাঈমা নামে চতুর্থ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বলে, বৈশাখের বিকেলগুলোতে খেলার মাঝে মধ্যে ঝড় উঠে। ঝড় আসা মানেই খেলা বন্ধ করে আম গাছের নিচে দৌড়। তারপর যত পারা যায় সবার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আম কুড়ানো। এখন ঝড় মানেই আম কুড়ানোর উপলক্ষ।

 

ঝড় মাথায় করে এ সময় সবাই বৃষ্টিতে ভিজে আম কুড়ায় আপন মনে। যতক্ষণ ঝড় চলে, আম কুড়ানোও চলে ততক্ষণ। কেউ পুরো বাগান ঘুরে বেড়ায়, কেউ আবার লক্ষ্য রাখে শুধু নির্দিষ্ট গাছটির প্রতিই। গাছের বোটা থেকে আম খসে মাটিতে পড়ার আগেই যেন কুড়িয়ে নিয়ে নিজের ঝাঁপিতে ঢোকাতে চায় সবাই।

 

আম কুড়ানো শেষে এসব আম দিয়ে আবার তৈরি হয় বিভিন্ন রকমের আচার। করা হয় রান্নাও। লবণ-মরিচ দিয়ে শুধু টক-মিষ্টি কাঁচা আমও খান অনেকে। এছাড়া ঝড়ের পরে বাড়িতে ভাই-বোন, খালা, ফুপি, চাচি যেই বেড়াতে আসুক না কেন, আচার করার জন্য এসব কাঁচা আম উপহার দেওয়া তাদেরও।

 

এ কথা বলতে গিয়ে বাগানে আম কুড়াতে আশা কিশোরী মারুফা বলে, আজকের ঝড়ে অন্য দিনের থেকে বেশি আম কুড়িয়েছি। এর ভেতর থেকে কিছু দিয়ে আচার করা হবে আর বাকিগুলো মামিকে পাঠাবো আচার করার জন্য।

 

গ্রীষ্মের দিনগুলোতে আম কুড়ানোই যেন গ্রামের শিশু-কিশোরদের কাছে সব থেকে মজার সময়, মধুর স্মৃতি। তাইতো ঝড় এলেই অন্য সব কাজ বা খেলা ফেলে বাগানে দৌড়ান তারা। ঝড় মানেই তাদের কাছে আম কুড়ানোর দিন। ঝড় মানেই বৃষ্টিতে ভিজে খুনসুটির মধুর সময়, স্বর্গীয় দিন।সূত্র-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» ফতুল্লায় বিএনপি নেতা নজরুল মাতবর গ্রেফতার

» ফতুল্লায় বিএনপির ৭১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

» স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে ফিরে পেতে স্বামীর আকুতি!

» সাংবাদিক সোহেল’র মায়ের রোগ মুক্তি কামনায়,ফতুল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে দোয়া

» স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে ফিরে পেতে স্বামীর আকুতি!

» ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নোমানী, সম্পাদক সোহেল

» রাজউক কর্তৃক উচ্ছেদ রূপগঞ্জের আবাসন প্রকল্পের সীমানা প্রাচীর

» নানা আয়োজনে বক্তাবলী দিবস পালন

» ফতুল্লায় হাজারো মানুষের বিষফোঁড়া!

» বেনাপোলে মদ গাঁজা ফেনসিডিলসহ আটক ৩

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২, খ্রিষ্টাব্দ, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঝড় মানেই আম কুড়ানোর দিন

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

কুষ্টিয়া থেকে, হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ফিচার রিপোর্টার: গ্রামে ঝড় এলেই আম বাগানে ছুট। শুরু আম কুড়ানোর প্রতিযোগিতা।

 

সে প্রতিযোগিতায় কে ছোট কে বড় তার কোনো ফারাক নেই। সবার একদিকেই ঝোঁক- তাহলো আম কুড়ানো।
আমবাগানে খুব বাতাসে গাছ থেকে টুপ করে যে আম পড়ে, সবাই মিলে সেই আম খোঁজা। খুঁজে পেলে শুরু কার আগে কে কুড়াতে পারে তা। এ যেন এক অনন্য সুন্দর আনন্দ।

 

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে হঠাৎ ঝড় শুরু হলে দেখা গেল সেই দৃশ্য। বিশেষ করে কুষ্টিয়ার মিরপুরে ঝড় শুরুর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই একটি আম বাগানে ভিড় জমে শিশু-কিশোরসহ সব বয়সী মানুষের।

এ সময় নাঈমা নামে চতুর্থ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বলে, বৈশাখের বিকেলগুলোতে খেলার মাঝে মধ্যে ঝড় উঠে। ঝড় আসা মানেই খেলা বন্ধ করে আম গাছের নিচে দৌড়। তারপর যত পারা যায় সবার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আম কুড়ানো। এখন ঝড় মানেই আম কুড়ানোর উপলক্ষ।

 

ঝড় মাথায় করে এ সময় সবাই বৃষ্টিতে ভিজে আম কুড়ায় আপন মনে। যতক্ষণ ঝড় চলে, আম কুড়ানোও চলে ততক্ষণ। কেউ পুরো বাগান ঘুরে বেড়ায়, কেউ আবার লক্ষ্য রাখে শুধু নির্দিষ্ট গাছটির প্রতিই। গাছের বোটা থেকে আম খসে মাটিতে পড়ার আগেই যেন কুড়িয়ে নিয়ে নিজের ঝাঁপিতে ঢোকাতে চায় সবাই।

 

আম কুড়ানো শেষে এসব আম দিয়ে আবার তৈরি হয় বিভিন্ন রকমের আচার। করা হয় রান্নাও। লবণ-মরিচ দিয়ে শুধু টক-মিষ্টি কাঁচা আমও খান অনেকে। এছাড়া ঝড়ের পরে বাড়িতে ভাই-বোন, খালা, ফুপি, চাচি যেই বেড়াতে আসুক না কেন, আচার করার জন্য এসব কাঁচা আম উপহার দেওয়া তাদেরও।

 

এ কথা বলতে গিয়ে বাগানে আম কুড়াতে আশা কিশোরী মারুফা বলে, আজকের ঝড়ে অন্য দিনের থেকে বেশি আম কুড়িয়েছি। এর ভেতর থেকে কিছু দিয়ে আচার করা হবে আর বাকিগুলো মামিকে পাঠাবো আচার করার জন্য।

 

গ্রীষ্মের দিনগুলোতে আম কুড়ানোই যেন গ্রামের শিশু-কিশোরদের কাছে সব থেকে মজার সময়, মধুর স্মৃতি। তাইতো ঝড় এলেই অন্য সব কাজ বা খেলা ফেলে বাগানে দৌড়ান তারা। ঝড় মানেই তাদের কাছে আম কুড়ানোর দিন। ঝড় মানেই বৃষ্টিতে ভিজে খুনসুটির মধুর সময়, স্বর্গীয় দিন।সূত্র-বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD