ফতুল্লায় মধ্যযুগীয় কায়দায় শ্রমিককে লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেদম প্রহার করে বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতির বিয়াই, প্রভাবশালী বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার এর বিরুদ্ধে  শরিফ হোসেন (১৯) নামে এক নিরীহ শ্রমিককে বাড়িতে ধরে নিয়ে  হাত-পা বেঁধে একটি ঘরে আটকে রেখে মধ্যযুগীয় কায়দায় লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেদম মারপিট করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার(২৫জুন) রাত সাড়ে সাতটার দিকে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকায় তৈয়ব ম্যানেজারের বাড়ির টর্চার খানায়। শরিফ হোসেন পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকার বুলু মিয়ার ছেলে ও তক্কারমাঠ এলাকার পিন্টু মিয়ার হোসিয়ারী কারখানার শ্রমিক।

 

নির্যাতনের শিকার শরিফ হোসেন এর মা জানান, আমার ছেলের সাথে তার বন্ধুর সাথে সামান্য বিষয় নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়, এক পর্যায় শরিফ তার বন্ধুকে একটি চর মারে। ছেলের বন্ধু তৈয়ব ম্যানেজারের ফ্যাক্টরী হৃদয় গ্রæপের  শ্রমিক।  শনিবার (২৫ জুন) রাত সাড়ে সাতটার দিকে তৈয়ব ম্যানেজার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী  আমার ছেলেকে ধরে নিয়ে একটি ঘরে আটক করে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় দেশীয় অস্ত্র ও বন্দুকের বাট দিয়ে আঘাত করে পিট সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কাটা রক্তাক্ত করা সহ গুরুতর নিলা ফুলা জখম করা হয়।  তার আর্ত-চিৎকারে শরিফ হোসেনের পিতা বুলু মিয়াসহ আশ-পাশের লোকজন  এগিয়ে এসে মুমূর্ষু অবস্থায় শরীফ হোসেনকে  উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করান।  আহত শরিফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক জানায়, আমরা অসহায় গরীব।  আর গরীবের কোন বিচার নাই। আর তৈয়ব ম্যানেজার প্রভাবশালী এবং তার সাথে সহযোগিতা করে আসছেন,তার বিয়াই ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা। ভয় ও আতংক নিয়ে হামলার শিকার শরীফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক হোসেন বলেন, এ বিষয় নিয়ে লেখার ধরকার নাই। যদি আপনারা লেখা লেখি করেন, তা হলে আমাদের গ্রাম ছাড়া হতে হবে। তৈয়ব ম্যানেজারসহ তার লোক জন আমাদের হুমকি দিয়েছে এ ঘটনা নিয়ে যেন কোন থানা পুলিশ না করি, করলে জানে মেরে ফেলবে তাই আমরা এ বিষয় নিয়ে কিছু করতে চাইনা  করলে আমাদের ক্ষতি হবে কারন তারা এলাকার প্রভাবশালী। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বললে তাদেরকে ধরে নিয়ে এভাবে নির্যাতন করে এর আগেও এমন অনেক ঘটনা  তারা ঘটিয়েছে। তাদের কিছুই হয়নি। আমারা তাদের কিছু করতে পারবো না। থানায় অভিযোগ করলে শুধু আমাদের বিপদ ছাড়া আর কিছুই হবেনা। কারন প্রভাবশালী তৈয়ব ম্যানেজারের বিয়াই থানা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা এবং থানা কমিউনিটি পুলিশিং সমন্বয় কমিটির সভাপতি। এ বিষয় নিয়ে এলাকাকায় সাধারন মানুষের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃস্টি হয়েছে এবং আতংক বিরাজ করছে।

 

এ বিষয়য়ে তৈয়ব ম্যানেজার মুঠো ফোনে কল দিলে তিনি জানান, ভাই একটি গ্রুপ আছে লালখাঁ এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা ইবু মিয়ার ভাই গাঁজাখোর ও মাদক ব্যবসায়ী ডালিম সজিব আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। আপনারা জানেন আমি এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি,ভালো কাজ করলে খারাপরাতো এ  বেপারে ওঠে পরে লাগবেই। আর আমি ভাই এ বিষয় কিছুই জানিনা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করেছে, আমি নাকি বিএনপির প্রভাবশালী নেতা।  আমি বিএনপি ছেড়ে দিছি আরো ১০ বছর আগে আমি বিএনপি করিনা, আপনারা দেখেছেন আমার লালখাঁ এলাকায় হৃদয় গ্রুপে আমির হোসেন আমু এসেছে আমি মাঝে মধ্যে চেয়ারম্যান সেন্টু ভাইয়ের কাছে যাই তার সাথে চলা ফেরা আমার। আমি আওয়ামী লীগ করি। অপর দিকে এলাকার একটি সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লায় গত ৩০ মে ২০২২ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪১ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে খিচুরী বিতরন সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের   অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অংশ গ্রহন করেছেন । কিন্তু সে বলতেছে  বিএনপি দলের সাথে তার কোন যোগাযোগ নেই, আওয়ামীলীগে যোগ দিয়েছি। আমাকে আমির হোসেন আমু ১০ বছর আগে  বিএনপি থেকে বাদ দিয়ে  আওয়ামী লীগে যোগদান করিয়েছে। আমি আমু ভাইয়ের স্ত্রীর নামে কলেজ করেছি আমি বিএনপি করি না।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» হঠাৎ এক ঝড়ে এলোমেলো করে দেয় সব!

» ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লার উদ্যেগে শোক দিবস পালিত

» বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পলাতক খুনিরা কে কোথায়?

» শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

» রাজধানীর উত্তরায় চাঁদা দাবির অভিযোগে ৪ হিজড়া গ্রেফতার

» টিকটক ভিডিও করতে সেতু থেকে লাফিয়ে নিখোঁজ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

» বৃষ্টি আর উত্তাল ঢেউয়ের সাথে কুয়াাকাটায় পর্যটকদের হৈ-হুল্লোড়

» জাতীয় শোক দিবস: ব্যানার-পোস্টারে আত্মপ্রচারবিহীন যুবলীগ

» কুতুবপুরে ২০টি স্পটের চাল বিতরণ

» সীমান্ত প্রেসক্লাবের সভাপতি পক্ষী, সাধারণ সম্পাদক রিপন সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, খ্রিষ্টাব্দ, ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফতুল্লায় মধ্যযুগীয় কায়দায় শ্রমিককে লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেদম প্রহার করে বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতির বিয়াই, প্রভাবশালী বিএনপি নেতা তৈয়ব ম্যানেজার এর বিরুদ্ধে  শরিফ হোসেন (১৯) নামে এক নিরীহ শ্রমিককে বাড়িতে ধরে নিয়ে  হাত-পা বেঁধে একটি ঘরে আটকে রেখে মধ্যযুগীয় কায়দায় লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেদম মারপিট করে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার(২৫জুন) রাত সাড়ে সাতটার দিকে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকায় তৈয়ব ম্যানেজারের বাড়ির টর্চার খানায়। শরিফ হোসেন পূর্ব সেহাচর লালখাঁ এলাকার বুলু মিয়ার ছেলে ও তক্কারমাঠ এলাকার পিন্টু মিয়ার হোসিয়ারী কারখানার শ্রমিক।

 

নির্যাতনের শিকার শরিফ হোসেন এর মা জানান, আমার ছেলের সাথে তার বন্ধুর সাথে সামান্য বিষয় নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়, এক পর্যায় শরিফ তার বন্ধুকে একটি চর মারে। ছেলের বন্ধু তৈয়ব ম্যানেজারের ফ্যাক্টরী হৃদয় গ্রæপের  শ্রমিক।  শনিবার (২৫ জুন) রাত সাড়ে সাতটার দিকে তৈয়ব ম্যানেজার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী  আমার ছেলেকে ধরে নিয়ে একটি ঘরে আটক করে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় দেশীয় অস্ত্র ও বন্দুকের বাট দিয়ে আঘাত করে পিট সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কাটা রক্তাক্ত করা সহ গুরুতর নিলা ফুলা জখম করা হয়।  তার আর্ত-চিৎকারে শরিফ হোসেনের পিতা বুলু মিয়াসহ আশ-পাশের লোকজন  এগিয়ে এসে মুমূর্ষু অবস্থায় শরীফ হোসেনকে  উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করান।  আহত শরিফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক জানায়, আমরা অসহায় গরীব।  আর গরীবের কোন বিচার নাই। আর তৈয়ব ম্যানেজার প্রভাবশালী এবং তার সাথে সহযোগিতা করে আসছেন,তার বিয়াই ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা। ভয় ও আতংক নিয়ে হামলার শিকার শরীফ হোসেনের বড় ভাই ফারুক হোসেন বলেন, এ বিষয় নিয়ে লেখার ধরকার নাই। যদি আপনারা লেখা লেখি করেন, তা হলে আমাদের গ্রাম ছাড়া হতে হবে। তৈয়ব ম্যানেজারসহ তার লোক জন আমাদের হুমকি দিয়েছে এ ঘটনা নিয়ে যেন কোন থানা পুলিশ না করি, করলে জানে মেরে ফেলবে তাই আমরা এ বিষয় নিয়ে কিছু করতে চাইনা  করলে আমাদের ক্ষতি হবে কারন তারা এলাকার প্রভাবশালী। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বললে তাদেরকে ধরে নিয়ে এভাবে নির্যাতন করে এর আগেও এমন অনেক ঘটনা  তারা ঘটিয়েছে। তাদের কিছুই হয়নি। আমারা তাদের কিছু করতে পারবো না। থানায় অভিযোগ করলে শুধু আমাদের বিপদ ছাড়া আর কিছুই হবেনা। কারন প্রভাবশালী তৈয়ব ম্যানেজারের বিয়াই থানা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা এবং থানা কমিউনিটি পুলিশিং সমন্বয় কমিটির সভাপতি। এ বিষয় নিয়ে এলাকাকায় সাধারন মানুষের মাঝে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃস্টি হয়েছে এবং আতংক বিরাজ করছে।

 

এ বিষয়য়ে তৈয়ব ম্যানেজার মুঠো ফোনে কল দিলে তিনি জানান, ভাই একটি গ্রুপ আছে লালখাঁ এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা ইবু মিয়ার ভাই গাঁজাখোর ও মাদক ব্যবসায়ী ডালিম সজিব আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। আপনারা জানেন আমি এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি,ভালো কাজ করলে খারাপরাতো এ  বেপারে ওঠে পরে লাগবেই। আর আমি ভাই এ বিষয় কিছুই জানিনা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করেছে, আমি নাকি বিএনপির প্রভাবশালী নেতা।  আমি বিএনপি ছেড়ে দিছি আরো ১০ বছর আগে আমি বিএনপি করিনা, আপনারা দেখেছেন আমার লালখাঁ এলাকায় হৃদয় গ্রুপে আমির হোসেন আমু এসেছে আমি মাঝে মধ্যে চেয়ারম্যান সেন্টু ভাইয়ের কাছে যাই তার সাথে চলা ফেরা আমার। আমি আওয়ামী লীগ করি। অপর দিকে এলাকার একটি সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লায় গত ৩০ মে ২০২২ বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪১ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে খিচুরী বিতরন সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের   অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অংশ গ্রহন করেছেন । কিন্তু সে বলতেছে  বিএনপি দলের সাথে তার কোন যোগাযোগ নেই, আওয়ামীলীগে যোগ দিয়েছি। আমাকে আমির হোসেন আমু ১০ বছর আগে  বিএনপি থেকে বাদ দিয়ে  আওয়ামী লীগে যোগদান করিয়েছে। আমি আমু ভাইয়ের স্ত্রীর নামে কলেজ করেছি আমি বিএনপি করি না।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD