সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

উজ্জীবিত বিডি ডটকম: সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে দেশের ও বিশ্বের সকল মানুষকে দল-মত নির্বিশেষে সচেতন ও সোচ্চার হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

সোমবার জাতীয় সংসদে প্রবীণ সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ কার্যপ্রণালীর ১৪৭ বিধির আওতায় একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সেই আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

 

শেখ হাসিনা বলেন, নিউজিল্যান্ডের মসজিদে, শ্রীলঙ্কার চার্চে এবং হোটেলে- এই ধরনের ঘটনার আমরা নিন্দা জানাই। এই সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমরা বাংলাদেশের প্রতিটি জনগণকে আহ্বান জানাব, সকলকে এ ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে। আমাদের দেশেও চেষ্টা করা হয়েছিল, হোলি আর্টিজানের ঘটনা। আমরা কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই ঘটনা দমন করতে সক্ষম হই।

 

তিনি বলেন, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ এখন শুধু বাংলাদেশ না সারা বিশ্বব্যাপী একটা সমস্যা। কাজেই এটা যেমন আমাদের দেশে মোকাবেলা করতে হবে আবার বিশ্বব্যাপী একটা জনমত সৃষ্টি করা এবং এই ধরনের ঘটনার যেন না ঘটে।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই যে মেয়েদের ওপর যে অত্যাচার নির্যাতন। সেই শিক্ষক যদি রক্ষক হয়ে ভক্ষক হয় এর থেকে লজ্জার আর কিছু নেই। আর সেটাও মাদরাসার। যারাই এই ধরনের ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকবে, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। দল-মত আমি দেখব না। কে আমি দেখব না, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস দমনে যা যা করণীয় আমরা তা করব। এই ধরনের যৌন নিপীড়ন যারা করবে তাদেরও ক্ষমা নেই। অনেক সংসদ সদস্য বলেছেন এর জন্য একটা কঠোর আইন করা দরকার। আমরা ইতোমধ্যেই মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিচারের ব্যবস্থা করেছি। আমাদের গোয়েন্দা তদারকি বৃদ্ধি করেছি। আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, প্রয়োজনে এর জন্য যদি কঠোর আইন করতে হয় অবশ্যই আমরা কঠোর আইন করব। যারা এই ধরনের যৌন নিপীড়ন করবে তাদের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি হয়। সেই ব্যবস্থা আমরা করব।

 

তিনি বলেন, যারা এই ধরনের (জঙ্গি হামলা) ঘটনা ঘটায় আসলে তাদের কোনো ধর্ম নেই। কোনো মুসলমান যদি এই ধরনের জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড করে আর ঈদের জামায়াতে আক্রমণ করার চিন্তা করতে পারে বা আক্রমণ করে তাহলে সে আবার কীসের মুসলমান?

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের রোহিঙ্গাদের ওপর যে অত্যাচার বুদ্ধিস্টরা করলো, মিয়ানমারে। তাহলে যারা এই ধরনের ঘটনা করে তারা তো নিজের ধর্মও মানে না।

 

তিনি বলেন, একাত্তর সালে যেভাবে মেয়েদের ওপর অত্যাচার হয়েছে, নির্যাতন হয়েছে। ঠিক ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর মেয়েদের ওপর রেপ হয়েছে, অত্যাচার হয়েছে। খুন করেছে, হাত কেটে দিয়েছে। চোখ তুলে দিয়েছে। হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে পিটিয়ে মানুষ হত্যা করেছে। এরপর আমরা ২০১৫ সালে দেখেছি অগ্নিসন্ত্রাসের ভয়াবহ রূপ।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা, এইভাবে যদি একটি রাজনৈতিক দল অগ্নিসন্ত্রাস না করতো তাহলে যদি পুড়িয়ে মানুষ হত্যা না করতো তাহলে হয়তো নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা মাথায় আসতো না। আজকে সকলকেই এই জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস-অগ্নিসন্ত্রাস, রেপ বা যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সকলকেই সোচ্চার হতে হবে। সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমরা সেটাই চাই। এখানে দল-মত নির্বিশেষে সকলকে মানবতার কথা বলবে।

 

আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপির সংসদ সদস্যদের শপথ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, অবশেষে রামের সুমতি হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, আইএসের পেছনের যারা পৃষ্ঠপোষক তার অধিকাংশই অমুসলিম। সিরিয়াতে দীর্ঘদিন গুপ্তচর হিসেবে কাজ করেছে তারাই হচ্ছে আজকে আইএসের পৃষ্ঠপোষক। এর মধ্য দিয়ে প্রমাণিত যে আইএস নামে যারা ধর্মের দোহাই দিয়ে এই সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে এটা মূলত ধর্মের জন্য নয়। এটা মূলত ইসলাম ধর্মকে বিতর্কিত করার জন্য এই ধরনের পৃষ্ঠপোষকতা করা হচ্ছে এবং ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

Facebook Comments

সর্বশেষ সংবাদ



» গলাচিপায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ৪ জন আহত! হাসপাতালে ভর্তি

» ডামুড্যার ৩৬ নং মধ্য সিড্যা সপ্রাবি’র ছাত্রছাত্রীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত 

» পুলিশ সাধারণ মানুষের জন্যই, তা প্রমাণ করে ডামুড্যা থানার ওসি মোঃ মেহেদী হাসান

» যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা বন্ধ বিপাকে ১৩ পরিবার

» আজ সেই ভয়াল ১৫ নভেম্বর : সিডরের ১৩ বছর উপকূলবাসীর বিভীষিকাময় এক দুঃস্বপ্ন

» ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থদের ডিসি মামুনুর রশিদের ঢেউটিন ও চেক বিতরণ

»  এবার পেঁয়াজ করল ডাবল সেঞ্চুরী

» চাঁপাইনবাবগঞ্জে মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষার্থীদের বিদায়

» জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির পদত্যাগ দাবী

» চরমোহনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পিইসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়




প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ

উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির

Info@ujjibitobd.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯,

বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, খ্রিষ্টাব্দ, ৩০শে কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

উজ্জীবিত বিডি ডটকম: সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে দেশের ও বিশ্বের সকল মানুষকে দল-মত নির্বিশেষে সচেতন ও সোচ্চার হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

সোমবার জাতীয় সংসদে প্রবীণ সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ কার্যপ্রণালীর ১৪৭ বিধির আওতায় একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সেই আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

 

শেখ হাসিনা বলেন, নিউজিল্যান্ডের মসজিদে, শ্রীলঙ্কার চার্চে এবং হোটেলে- এই ধরনের ঘটনার আমরা নিন্দা জানাই। এই সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমরা বাংলাদেশের প্রতিটি জনগণকে আহ্বান জানাব, সকলকে এ ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে। আমাদের দেশেও চেষ্টা করা হয়েছিল, হোলি আর্টিজানের ঘটনা। আমরা কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এই ঘটনা দমন করতে সক্ষম হই।

 

তিনি বলেন, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ এখন শুধু বাংলাদেশ না সারা বিশ্বব্যাপী একটা সমস্যা। কাজেই এটা যেমন আমাদের দেশে মোকাবেলা করতে হবে আবার বিশ্বব্যাপী একটা জনমত সৃষ্টি করা এবং এই ধরনের ঘটনার যেন না ঘটে।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই যে মেয়েদের ওপর যে অত্যাচার নির্যাতন। সেই শিক্ষক যদি রক্ষক হয়ে ভক্ষক হয় এর থেকে লজ্জার আর কিছু নেই। আর সেটাও মাদরাসার। যারাই এই ধরনের ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকবে, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। দল-মত আমি দেখব না। কে আমি দেখব না, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস দমনে যা যা করণীয় আমরা তা করব। এই ধরনের যৌন নিপীড়ন যারা করবে তাদেরও ক্ষমা নেই। অনেক সংসদ সদস্য বলেছেন এর জন্য একটা কঠোর আইন করা দরকার। আমরা ইতোমধ্যেই মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিচারের ব্যবস্থা করেছি। আমাদের গোয়েন্দা তদারকি বৃদ্ধি করেছি। আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করে যাচ্ছে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, প্রয়োজনে এর জন্য যদি কঠোর আইন করতে হয় অবশ্যই আমরা কঠোর আইন করব। যারা এই ধরনের যৌন নিপীড়ন করবে তাদের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি হয়। সেই ব্যবস্থা আমরা করব।

 

তিনি বলেন, যারা এই ধরনের (জঙ্গি হামলা) ঘটনা ঘটায় আসলে তাদের কোনো ধর্ম নেই। কোনো মুসলমান যদি এই ধরনের জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড করে আর ঈদের জামায়াতে আক্রমণ করার চিন্তা করতে পারে বা আক্রমণ করে তাহলে সে আবার কীসের মুসলমান?

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের রোহিঙ্গাদের ওপর যে অত্যাচার বুদ্ধিস্টরা করলো, মিয়ানমারে। তাহলে যারা এই ধরনের ঘটনা করে তারা তো নিজের ধর্মও মানে না।

 

তিনি বলেন, একাত্তর সালে যেভাবে মেয়েদের ওপর অত্যাচার হয়েছে, নির্যাতন হয়েছে। ঠিক ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর মেয়েদের ওপর রেপ হয়েছে, অত্যাচার হয়েছে। খুন করেছে, হাত কেটে দিয়েছে। চোখ তুলে দিয়েছে। হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে পিটিয়ে মানুষ হত্যা করেছে। এরপর আমরা ২০১৫ সালে দেখেছি অগ্নিসন্ত্রাসের ভয়াবহ রূপ।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা, এইভাবে যদি একটি রাজনৈতিক দল অগ্নিসন্ত্রাস না করতো তাহলে যদি পুড়িয়ে মানুষ হত্যা না করতো তাহলে হয়তো নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যা মাথায় আসতো না। আজকে সকলকেই এই জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস-অগ্নিসন্ত্রাস, রেপ বা যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সকলকেই সোচ্চার হতে হবে। সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমরা সেটাই চাই। এখানে দল-মত নির্বিশেষে সকলকে মানবতার কথা বলবে।

 

আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপির সংসদ সদস্যদের শপথ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, অবশেষে রামের সুমতি হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, আইএসের পেছনের যারা পৃষ্ঠপোষক তার অধিকাংশই অমুসলিম। সিরিয়াতে দীর্ঘদিন গুপ্তচর হিসেবে কাজ করেছে তারাই হচ্ছে আজকে আইএসের পৃষ্ঠপোষক। এর মধ্য দিয়ে প্রমাণিত যে আইএস নামে যারা ধর্মের দোহাই দিয়ে এই সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে এটা মূলত ধর্মের জন্য নয়। এটা মূলত ইসলাম ধর্মকে বিতর্কিত করার জন্য এই ধরনের পৃষ্ঠপোষকতা করা হচ্ছে এবং ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ

উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির

Info@ujjibitobd.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯,

বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD