পায়রার চিঠি নামে নতুন চলচ্চিত্রে প্রসূন আজাদ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

পায়রার চিঠি নামে নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন প্রসূন আজাদ। নিশিথ সূর্যের পরিচালনায় এ ছবির গল্পটি ব্যতিক্রম বলে জানা গেছে। জানা গেছে, ছবির গল্পে থাকছে প্রধানমন্ত্রীকে লেখা একটি চিঠির বাস্তব ঘটনা। ২০১৬ সালের ১৫ আগস্ট পটুয়াখালী সরকারি জুবিলি হাইস্কুলের ছাত্র শীর্ষেন্দু বিশ্বাস পায়রা নদীর ওপর একটি সেতু নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর চিঠি লিখেছিল। এত অল্প বয়সে শীর্ষেন্দুর এমন সচেতনতা ও সাহস দেখে অত্যন্ত খুশি হয়ে প্রত্যুত্তরে প্রধানমন্ত্রী চিঠি পাঠিয়েছিলেন। সেটাই উঠে আসবে চলচ্চিত্রে।

 

ছবির নির্মাতা নিশিথ সূর্য বলেন, ‘প্রসূন এখানে জুবিলি হাইস্কুলের শিক্ষিকার চরিত্রে অভিনয় করছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো চিঠিটি পড়ে শোনান। আর শীর্ষেন্দুর ভূমিকায় আছে কৌশাল চৌধুরী ও মায়ের চরিত্রে মাইমুন ফেরদৌস মম। গত ২১ জুলাই থেকে পটুয়াখালীতে এর দৃশ্যধারণ হয়েছে। পুরো ইউনিট এখন সেখানেই আছে। এ প্রসঙ্গে প্রসূন বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই আমি পর্দায় অনিয়মিত। ধীরে ধীরে কাজে যুক্ত হচ্ছি। এভাবেই ফিরতে চাই। আর এ ছবিটির গল্প সত্যিই মনকাড়া ও বাস্তবের ঘটনা নিয়ে তৈরি।

 

ওই বছর ৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী ফিরতি চিঠিটি লেখেন। সেটি শীর্ষেন্দুর স্কুলে পৌঁছায় ২০ সেপ্টেম্বর। সেতু নির্মাণের অনুরোধ জানিয়ে শীর্ষেন্দু লিখেছিল, ‘আমার গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি এবং বাড়ি যেতে আমাদের পায়রা নদী পার হতে হয়। এই নদীর বড় বড় ঢেউয়ে কখনো নৌকা ও ট্রলার ডুবে যায়। এ ধরনের দুর্ঘটনায় এই নদীতে অনেক প্রাণহানি হয়েছে। আমি বাবা-মাকে খুব ভালোবাসি, তাদের কখনো হারাতে চাই না। অতএব, আমি আপনাকে অনুরোধ করছি, মির্জাগঞ্জ নদীতে (পায়রা) একটি সেতু নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নেবেন।

Facebook Comments

সর্বশেষ সংবাদ



» বান্দরবানে দূর্গম এলাকায় সেনাবাহিনীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

» নারায়ণগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট কম’র ৪র্থ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

» খোচাঁখুচি করবেননা সাংবাদিকদের সেলিম ওসমান এমপি

» ছাঁটাইকৃত শ্রমিকদের বকেয়া বেতন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শ্রমিকদের মিছিল

» ফতুল্লায় ৩৩ কেভি বৈদ্যুতিক আগুনে জ্বলছে গেলো অনিক

» ফতুল্লায় চাঁদা না দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে হুমকি’ সানাউল্লাহ’র বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

» করোনা মহামারীতে মা হারানো কিশোরের গল্প ‘ফেরা’

» ফতুল্লায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে পিলকুনী হাক্কনী জান্নাতুল বাকী কবরস্থানে বৃক্ষরোপন

» না ফেরার দেশে চলে গেলেন এডভোকেট সাহারা খাতুন

» নাসিক ৬নং ওয়ার্ডে রাস্তা ও ড্রেণ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন প্যানেল মেয়র মতি




প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির
editor.kuakatanews@gmail.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯ ,

বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, খ্রিষ্টাব্দ, ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পায়রার চিঠি নামে নতুন চলচ্চিত্রে প্রসূন আজাদ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

পায়রার চিঠি নামে নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন প্রসূন আজাদ। নিশিথ সূর্যের পরিচালনায় এ ছবির গল্পটি ব্যতিক্রম বলে জানা গেছে। জানা গেছে, ছবির গল্পে থাকছে প্রধানমন্ত্রীকে লেখা একটি চিঠির বাস্তব ঘটনা। ২০১৬ সালের ১৫ আগস্ট পটুয়াখালী সরকারি জুবিলি হাইস্কুলের ছাত্র শীর্ষেন্দু বিশ্বাস পায়রা নদীর ওপর একটি সেতু নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর চিঠি লিখেছিল। এত অল্প বয়সে শীর্ষেন্দুর এমন সচেতনতা ও সাহস দেখে অত্যন্ত খুশি হয়ে প্রত্যুত্তরে প্রধানমন্ত্রী চিঠি পাঠিয়েছিলেন। সেটাই উঠে আসবে চলচ্চিত্রে।

 

ছবির নির্মাতা নিশিথ সূর্য বলেন, ‘প্রসূন এখানে জুবিলি হাইস্কুলের শিক্ষিকার চরিত্রে অভিনয় করছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো চিঠিটি পড়ে শোনান। আর শীর্ষেন্দুর ভূমিকায় আছে কৌশাল চৌধুরী ও মায়ের চরিত্রে মাইমুন ফেরদৌস মম। গত ২১ জুলাই থেকে পটুয়াখালীতে এর দৃশ্যধারণ হয়েছে। পুরো ইউনিট এখন সেখানেই আছে। এ প্রসঙ্গে প্রসূন বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই আমি পর্দায় অনিয়মিত। ধীরে ধীরে কাজে যুক্ত হচ্ছি। এভাবেই ফিরতে চাই। আর এ ছবিটির গল্প সত্যিই মনকাড়া ও বাস্তবের ঘটনা নিয়ে তৈরি।

 

ওই বছর ৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী ফিরতি চিঠিটি লেখেন। সেটি শীর্ষেন্দুর স্কুলে পৌঁছায় ২০ সেপ্টেম্বর। সেতু নির্মাণের অনুরোধ জানিয়ে শীর্ষেন্দু লিখেছিল, ‘আমার গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি এবং বাড়ি যেতে আমাদের পায়রা নদী পার হতে হয়। এই নদীর বড় বড় ঢেউয়ে কখনো নৌকা ও ট্রলার ডুবে যায়। এ ধরনের দুর্ঘটনায় এই নদীতে অনেক প্রাণহানি হয়েছে। আমি বাবা-মাকে খুব ভালোবাসি, তাদের কখনো হারাতে চাই না। অতএব, আমি আপনাকে অনুরোধ করছি, মির্জাগঞ্জ নদীতে (পায়রা) একটি সেতু নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নেবেন।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
সহ সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : কাজী আবু তাহের মো. নাছির
editor.kuakatanews@gmail.com

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯ ,

বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৭১৪ ০৪৩ ১৯৮।
News: ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD