মামুন বিতর্কিত করছে সালাম-বাবুলকে

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লা,সিদ্ধিরগঞ্জ ও রুপগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠনে জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদের বিরুদ্ধে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছে।

 

তথ্য মতে,জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান ও সাবেক সহ- সভাপতি শিল্পপতি শাহ আলমের নিকট থেকে ৬০ লাখ টাকা উৎকোচ নিয়ে তাদের পছন্দসই বিতর্কিতদের নাম তালিকাভুক্ত করে কেন্দ্রীয় বিএনপির শির্ষ পর্যায়ে উপস্থাপন করেছেন বা জমা দিয়েছেন। শুধু তাই নয় বিএনপির নেতা- কর্মীদের উপর গুলি চালানো সেই অস্ত্রবাজ পান্না মোল্লার নিকট থেকে নয়াপল্টনস্থ একটি অফিস উপহারস্বরুপ হিসেবে গ্রহন করে ফতুল্লা থানার সদস্য সচিব হিসেবে তার নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন। এ সকল বিষয়গুলো ধীরে ধীরে তৃনমূল নেতাকর্মী থেকে সর্ব মহলে ছড়িয়ে পরেছে। বিষয়টি নিয়ে জেলা বিএনপির ভাবমূর্তি এখন প্রশ্নবিদ। একই সাথে এ নিয়ে জেলার বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীরা আজ বিব্রত।
অর্থ বানিজ্যের মাধ্যমে কমিটি গঠনকল্পের বিষয়ে এবং পল্টনস্থ অফিস নেওয়ার প্রসঙ্গে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন সকল বিষয়েই দ্ধায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগীয় টিমের আব্দুল সালাম ও শহিদুল ইসলাম বাবুল অবগত রয়েছেন। নয়াপল্টনস্থ অফিসের বিষয়টি তিনি সরাসরি স্বিকার না করলে ও পাশকাটিয়ে তিনি বলেন,” একজন বিচারপতি তার এজলাস বা আদালত ছাড়াও যেখানে বসে এজলাস বা আদালত ঘোষনা করেন সেখানেই বিচার কার্য শুরু করেন বা করতে পারেন।”যেহেতু ঢাকাতে তার কোন অফিস নেই তাই তিনি পরিচিত যে কারো অফিসে বসেই দলীয় কাজ করতে পারেন।

 

দলীয় একাধিক সূত্র মতে,জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির গঠনকল্পে অর্থ বানিজ্যের মতো জেলা যুবদলের সভাপতি থাকাকালীন সময়ে ও মামুন মাহমুদের বিরুদ্ধে কমিটি গঠন নিয়ে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছিলো।ফলে তৎকালীন সময়ে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ এনে কেন্দ্র থেকে জেলা যুবদলের(মামুন- রিপন) কমিটি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছিলো।অপর একটি সূত্র মতে,জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠনের পূর্বে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক নাসিরের অনুাসারী দুজনকে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার নাম করে দুই লাখ টাকা উৎকোচ হিসেবে নাসিরের নিকট থেকে মামুন মাহমুদ গ্রহন করেছিলো। টাকা নেওয়ার পরেও তাদেরকে কমিটিতে অন্তভূক্ত না করায় এই বিষয়ে নাসির জেলা বিএনপির একাধিক নেতার নিকট বিষয়টি জানিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন।এরকম আরে বহু সংখ্যক অর্থ বানিজ্যের সাথে মামুন মাহমুদ জড়িত রয়েছে বলে জানা যায়।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» সুমিলপাড়া সুন্নীয়া ছোট জামে মসজিদের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্ধোধন করেন সিরাজুল ইসলাম মন্ডল

» সিদ্ধিরগঞ্জে ১২ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

» সিদ্ধিরগঞ্জে ফেন্সিডিল- গাঁজাসহ আটক ২

» আমতলীতে শেখ হাসিনা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে অভিভাবক সমাবেশ ও আলোচনা সভা

» আমতলী পৌর শহরে ২ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দূর্ধর্ষ চুরি!

» শার্শায় টানা বৃষ্টিতে কৃষকের স্বপ্ন পানিতে

» ফতুল্লা ইউপির নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডে ঘুড়ি পতিক পেয়েছেন মেম্বার প্রার্থী আব্দুল বাতেন

» আমতলীতে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে ৩৬ হাজার ২০০ শিশুকে

» ঢাকার পথে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ব্যবহৃত ট্যাংক

» ফতুল্লা ইউ‌পি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মহসিন মিয়ার মনোনয়ন প্রত্যাহার

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
editor.kuakatanews@gmail.com

যোগাযোগ: সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
ফোন: +৮৮ ০১৬৭৪৬৩২৫০৯, ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯,
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯ ।

News: ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, খ্রিষ্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মামুন বিতর্কিত করছে সালাম-বাবুলকে

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লা,সিদ্ধিরগঞ্জ ও রুপগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠনে জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদের বিরুদ্ধে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছে।

 

তথ্য মতে,জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান ও সাবেক সহ- সভাপতি শিল্পপতি শাহ আলমের নিকট থেকে ৬০ লাখ টাকা উৎকোচ নিয়ে তাদের পছন্দসই বিতর্কিতদের নাম তালিকাভুক্ত করে কেন্দ্রীয় বিএনপির শির্ষ পর্যায়ে উপস্থাপন করেছেন বা জমা দিয়েছেন। শুধু তাই নয় বিএনপির নেতা- কর্মীদের উপর গুলি চালানো সেই অস্ত্রবাজ পান্না মোল্লার নিকট থেকে নয়াপল্টনস্থ একটি অফিস উপহারস্বরুপ হিসেবে গ্রহন করে ফতুল্লা থানার সদস্য সচিব হিসেবে তার নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন। এ সকল বিষয়গুলো ধীরে ধীরে তৃনমূল নেতাকর্মী থেকে সর্ব মহলে ছড়িয়ে পরেছে। বিষয়টি নিয়ে জেলা বিএনপির ভাবমূর্তি এখন প্রশ্নবিদ। একই সাথে এ নিয়ে জেলার বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীরা আজ বিব্রত।
অর্থ বানিজ্যের মাধ্যমে কমিটি গঠনকল্পের বিষয়ে এবং পল্টনস্থ অফিস নেওয়ার প্রসঙ্গে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন সকল বিষয়েই দ্ধায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগীয় টিমের আব্দুল সালাম ও শহিদুল ইসলাম বাবুল অবগত রয়েছেন। নয়াপল্টনস্থ অফিসের বিষয়টি তিনি সরাসরি স্বিকার না করলে ও পাশকাটিয়ে তিনি বলেন,” একজন বিচারপতি তার এজলাস বা আদালত ছাড়াও যেখানে বসে এজলাস বা আদালত ঘোষনা করেন সেখানেই বিচার কার্য শুরু করেন বা করতে পারেন।”যেহেতু ঢাকাতে তার কোন অফিস নেই তাই তিনি পরিচিত যে কারো অফিসে বসেই দলীয় কাজ করতে পারেন।

 

দলীয় একাধিক সূত্র মতে,জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির গঠনকল্পে অর্থ বানিজ্যের মতো জেলা যুবদলের সভাপতি থাকাকালীন সময়ে ও মামুন মাহমুদের বিরুদ্ধে কমিটি গঠন নিয়ে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ উঠেছিলো।ফলে তৎকালীন সময়ে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ এনে কেন্দ্র থেকে জেলা যুবদলের(মামুন- রিপন) কমিটি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছিলো।অপর একটি সূত্র মতে,জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠনের পূর্বে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক নাসিরের অনুাসারী দুজনকে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার নাম করে দুই লাখ টাকা উৎকোচ হিসেবে নাসিরের নিকট থেকে মামুন মাহমুদ গ্রহন করেছিলো। টাকা নেওয়ার পরেও তাদেরকে কমিটিতে অন্তভূক্ত না করায় এই বিষয়ে নাসির জেলা বিএনপির একাধিক নেতার নিকট বিষয়টি জানিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন।এরকম আরে বহু সংখ্যক অর্থ বানিজ্যের সাথে মামুন মাহমুদ জড়িত রয়েছে বলে জানা যায়।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
editor.kuakatanews@gmail.com

যোগাযোগ: সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
ফোন: +৮৮ ০১৬৭৪৬৩২৫০৯, ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯,
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯ ।

News: ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD