হাইকোর্টে জামিন চাইলেন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সেই মিন্নি

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন। সোমবার (৩০ মে) বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদনটির ওপর শুনানি হতে পারে। তার অন্যতম আইনজীবী মো. শাহীনুজ্জামান গণমাধ্যমের কাছে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। ২০১৯ সালের ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজ রোডের ক্যালিক্স একাডেমির সামনে স্ত্রী মিন্নির সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে আহত করে নয়ন বন্ড এবং রিফাত ফরাজীর সহযোগীরা।

 

এরপর গুরুতর অবস্থায় রিফাতকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরবর্তীকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আর সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাতের মৃত্যু হয়।পরে নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে সাব্বির আহম্মেদ ওরফে নয়ন বন্ডকে প্রধান আসামি করে মোট ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও পাঁচ/ছয় জনের বিরুদ্ধে বরগুনা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মূলত সেই মামলায় প্রথমে মিন্নিকে প্রধান সাক্ষী বানিয়েছিলেন নিহত রিফাতের বাবা।

 

এরপর একই বছরের ২ জুলাই ভোরে জেলা সদরের বুড়িরচর ইউনিয়নের পুরাকাটা ফেরিঘাট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড (২৫) প্রাণ হারান। আরও পড়ুন : মেঘনা থেকে বালু উত্তোলনে সেলিম খানকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা নির্মম সেই হত্যাকাণ্ডের ২০ দিন পর ওই বছরের ১৬ জুলাই মিন্নিকে তার বাবার বাসা থেকে বরগুনা পুলিশ লাইনে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করার পর এ হত্যার ঘটনায় মিন্নির সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে ধারণা হওয়ায় সেই রাতেই তাকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ। পরে একই বছরের ২৯ আগস্ট হাইকোর্ট থেকে মিন্নিকে জামিন দেওয়া হয়।

 

দীর্ঘ সময় যাবত চলা বিচারকাজ শেষে ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনের বিষয়ে রায় ঘোষণা করেন বরগুনা জেলা নারী ও শিশু আদালতের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান। রায়ে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির মধ্যে ছয়জনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রদান করেন আদালত। একই সঙ্গে ছয় আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানার দণ্ডেও দণ্ডিত করেন। আর বাকি চারজনকে খালাস দেওয়া হয়।

 

পরে নিয়ম অনুসারে একই বছরের ৪ অক্টোবর ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে এসে পৌঁছে। পাশাপাশি ৬ অক্টোবর মিন্নিসহ বাকি আসামিরা আপিল করে। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন— মো. রাকিবুল হাসান রিফাত ওরফে রিফাত ফরাজী, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বী আকন, রেজোয়ান আলী খাঁন হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান এবং আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি।

 

মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন— মো. মুসা (পলাতক), মো. সাগর, রাফিউল ইসলাম রাব্বি এবং কামরুল ইসলাম সাইমুন। এরপর ওই রায়ের বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন মিন্নি। পরে ২০২০ সালের ৪ নভেম্বর সে আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তার জরিমানাও স্থগিতের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালত।

 

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» ফতুল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে প্রবীণ সাংবাদিক নুরুল ইসলাম নুরু’র জন্মদিন পালন

» কোরবানির বাজার ধরতে প্রস্তুত ঝিকরগাছার “লাল বাদশা”

» সোনারগাঁয়ে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

» ফতুল্লায় ট্রাক ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

» বাংলাদেশ নিজের পায়ে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে: শামীম ওসমান

» কলারোয়া পৌর প্রেসক্লাবের কমিটি’র সভাপতি সরদার ইমরান ও সম্পাদক জুলফিকার আলী

» শার্শায় কিশোরীদের সচেতনতা মূলক প্রশিক্ষণ ও উপকরণ বিতরণ

» হজে গিয়ে ভিক্ষার ঘটনায় গ্রেফতার ১ বাংলাদেশি

» ট্রেনে কাটা পড়ে কলেজ শিক্ষার্তী নিহত

» আমতলীতে ফারিয়ার মানবন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই ২০২২, খ্রিষ্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাইকোর্টে জামিন চাইলেন মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সেই মিন্নি

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন। সোমবার (৩০ মে) বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে আবেদনটির ওপর শুনানি হতে পারে। তার অন্যতম আইনজীবী মো. শাহীনুজ্জামান গণমাধ্যমের কাছে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। ২০১৯ সালের ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজ রোডের ক্যালিক্স একাডেমির সামনে স্ত্রী মিন্নির সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে আহত করে নয়ন বন্ড এবং রিফাত ফরাজীর সহযোগীরা।

 

এরপর গুরুতর অবস্থায় রিফাতকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরবর্তীকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আর সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাতের মৃত্যু হয়।পরে নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে সাব্বির আহম্মেদ ওরফে নয়ন বন্ডকে প্রধান আসামি করে মোট ১২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও পাঁচ/ছয় জনের বিরুদ্ধে বরগুনা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মূলত সেই মামলায় প্রথমে মিন্নিকে প্রধান সাক্ষী বানিয়েছিলেন নিহত রিফাতের বাবা।

 

এরপর একই বছরের ২ জুলাই ভোরে জেলা সদরের বুড়িরচর ইউনিয়নের পুরাকাটা ফেরিঘাট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড (২৫) প্রাণ হারান। আরও পড়ুন : মেঘনা থেকে বালু উত্তোলনে সেলিম খানকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা নির্মম সেই হত্যাকাণ্ডের ২০ দিন পর ওই বছরের ১৬ জুলাই মিন্নিকে তার বাবার বাসা থেকে বরগুনা পুলিশ লাইনে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দীর্ঘ সময় জিজ্ঞাসাবাদ করার পর এ হত্যার ঘটনায় মিন্নির সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে ধারণা হওয়ায় সেই রাতেই তাকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ। পরে একই বছরের ২৯ আগস্ট হাইকোর্ট থেকে মিন্নিকে জামিন দেওয়া হয়।

 

দীর্ঘ সময় যাবত চলা বিচারকাজ শেষে ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনের বিষয়ে রায় ঘোষণা করেন বরগুনা জেলা নারী ও শিশু আদালতের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান। রায়ে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির মধ্যে ছয়জনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রদান করেন আদালত। একই সঙ্গে ছয় আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানার দণ্ডেও দণ্ডিত করেন। আর বাকি চারজনকে খালাস দেওয়া হয়।

 

পরে নিয়ম অনুসারে একই বছরের ৪ অক্টোবর ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে এসে পৌঁছে। পাশাপাশি ৬ অক্টোবর মিন্নিসহ বাকি আসামিরা আপিল করে। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন— মো. রাকিবুল হাসান রিফাত ওরফে রিফাত ফরাজী, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বী আকন, রেজোয়ান আলী খাঁন হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান এবং আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি।

 

মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন— মো. মুসা (পলাতক), মো. সাগর, রাফিউল ইসলাম রাব্বি এবং কামরুল ইসলাম সাইমুন। এরপর ওই রায়ের বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন মিন্নি। পরে ২০২০ সালের ৪ নভেম্বর সে আবেদনটি শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তার জরিমানাও স্থগিতের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালত।

 

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD