না’গঞ্জ বিএনপির এখন হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির এখন হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে। নেতায় নেতায় দ্বন্দ্ব আর কোন্দলে জর্জরিত মূলদলসহ প্রায় প্রতিটি অংঙ্গ সংগঠন। যে কারণে পুরোপুরি হতাশ তৃনমূলের সকল নেতাকর্মী। তৃর্নমূল নেতাকর্মীদের দাবি বর্তমান পরিস্থিতিতে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশত মুক্তি বা সরকার পতন আন্দোলনে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি কার্যকর কোনো ভূমিকা রাখতে পারছে না। নেতায় নেতায় কোন্দলের কারণে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা আন্দোলনমুখি হলেও নেতাদের কোন্দলের কারনে মাঠে নামতে আগ্রহী হচ্ছেনা। যে কারণে নারায়ণগঞ্জে মাঠ পর্যায়ে বিএনপির সমর্থক থাকা সত্বেও আন্দোলন সংগ্রামে তেমন কোন ভূমিকা পালনসহ বিগত নির্বাচনে অনেক প্রার্থীই জামানত হারিয়েছে। এজন্য সাধারণ নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা নারায়ণগঞ্জ বিএনপির শীর্ষ নেতাদের দায়ি করে বলেছেন, ক্ষমতায় গেলে পদ পদবী ভোগ করবেন তারা আর আমরা সরকার বিরোধী আন্দোলনে নামতে গিয়ে পুলিশের হামলার শিকার হবো এমন রাজনীতি না করাই ভাল। যে কারণে অনেকেই বিএনপি থেকে নিজেদের গুটিয়ে নিতে শুরু করেছেন। শুধু তাই নয়, ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির তেমন কোন ভূমিকা পালন করতে না পারায় মাঠ পর্যায়ের সমর্থকরা এখন হতাশায় ভুগছে। পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে তৃনমূলের নেতা অভিযোগ করে বলেন, ভুল নেতৃত্বের হাতে জেলা বিএনপি তুলে দিয়ে প্রথম ভুলটি করেছে দলীয় হাইকমান্ড। যে কারনে বিএনপির তৃনমূল হতাশ এবং নতুন আহ্বায়ক কমিটিও তৃনমলকে ঐক্যবদ্ধ করতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছেন। তাছাড়া এতদিনেও তারা জেলা শহরের প্রান কেন্দ্রে একটি দলীয় কার্যালয় স্থাপনসহ দলের অন্যান্য অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের এক ছাতার নিচে আনতে ব্যর্থ হয়েছেন। তারা আরও বলেন, বর্তমান কমিটি কতটুকু সফল তা গত কয়েকটি আন্দোলনের দিকে তাকলেই অনুমেয়। তাছাড়া অযোগ্যদের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি। যে কারনে দলীয় আন্দোলনে সফলতার মুখ দেখতে পারছে না জেলা বিএনপি। অন্যদিকে একই কমিটির যুগ্ন আহ্বায়ক মামুন মাহমুদ পুরোপুরিভাবে রাজনীতিবিদ হলেও এতবড় পদ পাওয়ার পর কেমন যেন পাল্টে গেছেন। অতীতে জেলা বিএনপির দায়িত্বশীল পদে থাকাবস্থায় দলীয় স্বার্থের চাইতে পদ বানিজ্যটা যেন তার কাছে মুখ্য হয়ে উঠেছিল। এছাড়াও তিনি নিজ ঘরের কোণে সিদ্ধিরগঞ্জে দলীয় রাজনীতিটাকে সীমাবদ্ধ করে রেখেছেন। আর এসব কারনে কমিটির দায়িত্বশীল একটি বিরাট অংশ বেশ কিছুদিন ধরে তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় দলটি বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এদিকে মহানগর বিএনপির নেতৃত্ব নির্ধারনেও দলীয় হাইকমান্ড অনেক বড় ভুল করেছে দাবি তৃনমূলের। তাদের মতে এ কমিটির আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন খাঁন কখনোই কর্মী বান্ধব নেতা ছিলেন না, এখনও নেই। সেভেন মার্ডারের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আইনজীবি হিসেবে তিনি নিয়োগ পাওয়ায় দেশব্যাপি আলোচনায় আসেন তিনি। তিনি এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে রাজনীতি করে আসছেন বলে দলের কর্মীদের অভিযোগ। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে মহানগরের মত এতবড় একটি সংগঠনের গুরুদায়িত্ব পালন করার মত কোনো যোগ্যতা এই নেতার মধ্যে নাই। তবে একই কমিটির সদস্য সচিব আবু আল ইউসুফ খান টিপু দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ হলেও কোনোভাবেই তিনি কর্মী বান্ধব নেতা নন। যার ফলে এদের দ্বারা দলীয় ফলাফল এখানও শূন্যই বলা চলে। তবে নব গঠতি জেলা ও মহানগর যুবদল নিয়ে তৃনমূলের খুব একটা অভিযোগ না থাকলেও রয়েছে জেলা ছাত্রদল ও ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটির বিরুদ্ধে। তাদের মতে, যেকোন রাজনৈতিক সংগঠনের প্রাণ শক্তি হচ্ছে ছাত্রদল। অপরদিকে, বর্তমান ফতুল্লা থানা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির মধ্যে নেতায় নেতায় দ্বন্ধ বিরাজ করে আসছে। আহ্বায়ক শহীদুল ইসলাম টিটু এবং সদস্য সচিব জাহিদ হাসান রোজেলের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদীন ধরে দ্বন্ধ চলে আসছে। এর ফলে ফতুল্লা বিএনপিও অনেকটা নাজুক অবস্থার মধ্যে তাদের দল পরিচালিত হচ্ছে। সার্বিক দিয়ে নারায়গঞ্জে বিএনপির রাজনীতি বেহাল অবস্থার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হচ্ছে।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» যৌতুক মামলায় আর্থিক দন্ডপ্রাপ্ত হয়েও সরকারী চাকুরীতে বহাল তবিয়তে প্রধান শিক্ষিকা

» গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন এডভোকেট শামসুল হক

» ৬ষ্ঠ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের অভিষেক অনুষ্ঠিত

» মৌলভীবাজারে দৈনিক গণমুক্তি‘র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

» বুড়িগঙ্গা নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

» ফতুল্লায় ইয়াবা ট্যাবলেটসহ শান্ত ও বাবু গ্রেফতার

» আমতলীতে ৪০০ গ্রাম গাঁজা এবং ১০ পিস ইয়াবাসহ আটক ৩ কারবারী

» ফতুল্লায় যমুনা ডিপো গেইট থেকে তেলসহ চুরি হওয়া ট্যাকলড়ী কাচপুরে উদ্ধার

» ফতুল্লায় লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার চালক নিহত

» সাংবাদিকের বাবা-মায়ের উপর হামলা, রক্তাক্ত জখম

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, খ্রিষ্টাব্দ, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

না’গঞ্জ বিএনপির এখন হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির এখন হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে। নেতায় নেতায় দ্বন্দ্ব আর কোন্দলে জর্জরিত মূলদলসহ প্রায় প্রতিটি অংঙ্গ সংগঠন। যে কারণে পুরোপুরি হতাশ তৃনমূলের সকল নেতাকর্মী। তৃর্নমূল নেতাকর্মীদের দাবি বর্তমান পরিস্থিতিতে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশত মুক্তি বা সরকার পতন আন্দোলনে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি কার্যকর কোনো ভূমিকা রাখতে পারছে না। নেতায় নেতায় কোন্দলের কারণে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা আন্দোলনমুখি হলেও নেতাদের কোন্দলের কারনে মাঠে নামতে আগ্রহী হচ্ছেনা। যে কারণে নারায়ণগঞ্জে মাঠ পর্যায়ে বিএনপির সমর্থক থাকা সত্বেও আন্দোলন সংগ্রামে তেমন কোন ভূমিকা পালনসহ বিগত নির্বাচনে অনেক প্রার্থীই জামানত হারিয়েছে। এজন্য সাধারণ নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা নারায়ণগঞ্জ বিএনপির শীর্ষ নেতাদের দায়ি করে বলেছেন, ক্ষমতায় গেলে পদ পদবী ভোগ করবেন তারা আর আমরা সরকার বিরোধী আন্দোলনে নামতে গিয়ে পুলিশের হামলার শিকার হবো এমন রাজনীতি না করাই ভাল। যে কারণে অনেকেই বিএনপি থেকে নিজেদের গুটিয়ে নিতে শুরু করেছেন। শুধু তাই নয়, ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির তেমন কোন ভূমিকা পালন করতে না পারায় মাঠ পর্যায়ের সমর্থকরা এখন হতাশায় ভুগছে। পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে তৃনমূলের নেতা অভিযোগ করে বলেন, ভুল নেতৃত্বের হাতে জেলা বিএনপি তুলে দিয়ে প্রথম ভুলটি করেছে দলীয় হাইকমান্ড। যে কারনে বিএনপির তৃনমূল হতাশ এবং নতুন আহ্বায়ক কমিটিও তৃনমলকে ঐক্যবদ্ধ করতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছেন। তাছাড়া এতদিনেও তারা জেলা শহরের প্রান কেন্দ্রে একটি দলীয় কার্যালয় স্থাপনসহ দলের অন্যান্য অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের এক ছাতার নিচে আনতে ব্যর্থ হয়েছেন। তারা আরও বলেন, বর্তমান কমিটি কতটুকু সফল তা গত কয়েকটি আন্দোলনের দিকে তাকলেই অনুমেয়। তাছাড়া অযোগ্যদের মাধ্যমে গঠন করা হয়েছে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি। যে কারনে দলীয় আন্দোলনে সফলতার মুখ দেখতে পারছে না জেলা বিএনপি। অন্যদিকে একই কমিটির যুগ্ন আহ্বায়ক মামুন মাহমুদ পুরোপুরিভাবে রাজনীতিবিদ হলেও এতবড় পদ পাওয়ার পর কেমন যেন পাল্টে গেছেন। অতীতে জেলা বিএনপির দায়িত্বশীল পদে থাকাবস্থায় দলীয় স্বার্থের চাইতে পদ বানিজ্যটা যেন তার কাছে মুখ্য হয়ে উঠেছিল। এছাড়াও তিনি নিজ ঘরের কোণে সিদ্ধিরগঞ্জে দলীয় রাজনীতিটাকে সীমাবদ্ধ করে রেখেছেন। আর এসব কারনে কমিটির দায়িত্বশীল একটি বিরাট অংশ বেশ কিছুদিন ধরে তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় দলটি বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এদিকে মহানগর বিএনপির নেতৃত্ব নির্ধারনেও দলীয় হাইকমান্ড অনেক বড় ভুল করেছে দাবি তৃনমূলের। তাদের মতে এ কমিটির আহ্বায়ক সাখাওয়াত হোসেন খাঁন কখনোই কর্মী বান্ধব নেতা ছিলেন না, এখনও নেই। সেভেন মার্ডারের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আইনজীবি হিসেবে তিনি নিয়োগ পাওয়ায় দেশব্যাপি আলোচনায় আসেন তিনি। তিনি এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে রাজনীতি করে আসছেন বলে দলের কর্মীদের অভিযোগ। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে মহানগরের মত এতবড় একটি সংগঠনের গুরুদায়িত্ব পালন করার মত কোনো যোগ্যতা এই নেতার মধ্যে নাই। তবে একই কমিটির সদস্য সচিব আবু আল ইউসুফ খান টিপু দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ হলেও কোনোভাবেই তিনি কর্মী বান্ধব নেতা নন। যার ফলে এদের দ্বারা দলীয় ফলাফল এখানও শূন্যই বলা চলে। তবে নব গঠতি জেলা ও মহানগর যুবদল নিয়ে তৃনমূলের খুব একটা অভিযোগ না থাকলেও রয়েছে জেলা ছাত্রদল ও ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটির বিরুদ্ধে। তাদের মতে, যেকোন রাজনৈতিক সংগঠনের প্রাণ শক্তি হচ্ছে ছাত্রদল। অপরদিকে, বর্তমান ফতুল্লা থানা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির মধ্যে নেতায় নেতায় দ্বন্ধ বিরাজ করে আসছে। আহ্বায়ক শহীদুল ইসলাম টিটু এবং সদস্য সচিব জাহিদ হাসান রোজেলের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘদীন ধরে দ্বন্ধ চলে আসছে। এর ফলে ফতুল্লা বিএনপিও অনেকটা নাজুক অবস্থার মধ্যে তাদের দল পরিচালিত হচ্ছে। সার্বিক দিয়ে নারায়গঞ্জে বিএনপির রাজনীতি বেহাল অবস্থার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হচ্ছে।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD