কুতুবপু‌রে ওস্তাদের পরকীয়ায় ধুলিসাৎ মুরিদের সংসার!

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

ফতুল্লায় একটি মাদ্রাসার লুলোপ দৃষ্টির কারনে সাজানো সংসার সংসার নষ্টসহ মানবেতর জীবন যাপন করছে এক ব্যাক্তি। একই মাদ্রাসার মুরিদের স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে স্বামীকে তালাক প্রধানে বাধ্য করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এমনকি লম্পট সুলতান মাহমুদ তার স্বার্থ হাছিলে ঐ নীরিহ ব্যাক্তির বিরুদ্ধে পরিবারকে প্রতিপক্ষ হিসেবে দ্বার করানো হয়েছে বলেও অভিযোগে প্রকাশ।

 

এমনকি, লম্পট সুলতান মাহমুদের কুটচালে সুখের সংসারে অশান্তি বিরাজ করতে থাকে। বেপরোয়া হয়ে উঠে স্ত্রী ও সন্তানরা। অব্যাহতভাবে স্ত্রী ও সন্তানদের অত্যাচারে মানবেতর জীবন পার করছে নুরু ওস্তাগার নামের এক ব্যাক্তি। পরিবারের সদস্যদের এমন অ-মানবিক ঘটনার বিচারের দাবিতে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করালেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ধরনের সহযোগিতা পাচ্ছেন না বলে তিনি অভিযোগ করেন।

 

এদিকে তিনি আরো অভিযোগ করেন, ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় অবস্থিত নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদের প্ররোচনায় তার সুখের সংসার ধ্বংসের পথে ধাবিত হয়েছে। এ ঘটনায় নুরু ওস্তাগার ফতুল্লা মডেল থানাসহ বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট “খ” অঞ্চল নারায়ণগঞ্জ আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে ভোক্তভোগী নুরু ওস্তাগার তার স্ত্রী হালিমা খাতুন ও অবাধ্য সন্তানসহ এবং উক্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সুলতান মাহমুদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করার দাবি জানান।

 

নুরু ওস্তাগার সাংবাদিকদের জানান, পারিবারিকভাবে বিয়ের কয়েক বছর তাদের দাম্পত্য জীবন ভালই চলছিল। এ সময় ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় বসবাসকালে পরিচয় হয় বর্তমান নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতানের সাথে। পরিচয়ের সুবাধে তার বাড়ীতে নির্বিঘেœ যাতায়াত ছিল সুলতানের। একটা সময় সুলতানের পরামর্শে গত ১৪ বছর পূর্বে মাদ্রাসায় বসবাস শুরু করেন সে সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। তবে, হঠাৎ করেই মাদ্রাসার দাপ্তরিক বিভিন্ন কাজের দায়িত্ব দিয়ে সুলতান মাহমুদ দেশের বিভিন্ন জেলায় তাকে পাঠানো হত। কিন্তু নুরু ওস্তাগার ভূলেও ভাবেননি একটি মাদ্রাসার দায়িদ্বে থাকা মানুষ এতটা জঘন্য চরিত্রর হতে পারে!

 

লম্পট সুলতান মাহমুদের লুলোপ দৃষ্টি পড়ে তার স্ত্রী হালিমা খাতুনের উপর। মাদ্রাসার দায়িত্ব পালনের অজুহাতে দেশের বিভিন্নস্থানে তাকে পাঠিয়ে তার স্ত্রী হালিমা খাতুনের সাথে অবৈধ সর্ম্পকে গড়ে তুলতেন সুলতান মাহমুদ এমনটাই অভিযোগ করেন সাংবাদিকদের কাছে। দীর্ঘদীন ধরে চলে আসা এমন অসম প্রেম কাহিনী যে মুহুর্র্তে তিনি বুজতে পারেন” ঠিক সে সময় থেকেই তার স্ত্রী হালিমা খাতুন তাকে অবজ্ঞাসহ লম্পট সুলতান মাহমুদের কথামত বেপরোয়াভাবে চলাফেরা করতে থাকে। এমনকি শারীরিকভাবে তাকে নির্যাতনসহ বাড়ীতে থাকা নগদ সাড়ে ৭ লাখ টাকা এবং পৈত্রিক ভিটে বাড়ীও জোড়পূর্বক লিখে নেন। এক পর্যায়ে লম্পট সুলতান মাহমুদ তার পরকীয়া প্রেমিকা হালিমা খাতুনকে নিজের করে পাওয়ার জন্য নুরু ওস্তাগারকে তালাক দেয়ার ব্যবস্থা করে দেন বলেও অভিযোগ করা হচ্ছে।

 

দীর্ঘদীন ধরে চলে আসা অবৈধ এ সর্ম্পকের প্রতিবাদ করলে লম্পট সুলতান মাহমুদ ও হালিমা এবং নজরুল নামের এক ব্যাক্তিসহ তাকে মারধর করে বাড়ী থেকে বের করে দেন। একটা সময় তিনি জানতে পারেন, তার স্ত্রী হালিমা খাতুনসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের অভিযুক্ত সুলতান মাহমুদ কোথায়ও লুকিয়ে রেখেছেন।

 

এ ব্যাপারে উক্ত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদের কাছে নুরু ওস্তাগার তার পরিবারের খোঁজ নিতে গেলে কোন ধরনের তথ্যে দেয়াতো দূরে থাক উল্টো নুরু ওস্তাগারকে পরকীয়া প্রেমিক হালিমা খাতুনকে ভ‚লে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করে আসছে। বর্তমানে এ অবস্থার মধ্যদিয়ে অনেকটা মানবেতর জীবন পার করছে নুরু ওস্তাগার। এদিকে প্রতারনার মাধ্যমে জোড়পূর্বক তার পৈত্রিক সম্পত্তি এবং কষ্টার্জিত অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় লম্পট সুলতান মাহমুদ, স্ত্রী হালিমা খাতুন, নজরুলগণদের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচারের স্বার্থে ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

 

সর্বশেষ বিচারের বানী নিয়ে পর্যায়ে ন্যায় বিচারের আশায় নারায়ণগঞ্জ জেলা জজ আদাতে নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদ, স্ত্রী হালিমা খাতুন এবং নজরুল গণদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে পাগলা নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদ তার বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নুরু ওস্তাগার তার পরিবারকে ভরন পোষন না দেওয়ায় মানবিক দৃষ্টিতে আমরা মাদ্রাসায় আস্রয় দেই। তবে, বর্তমানে নুরু ওস্তাগারের পরিবারের সদস্যরা এখনো থাকেন না।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» যৌতুক মামলায় আর্থিক দন্ডপ্রাপ্ত হয়েও সরকারী চাকুরীতে বহাল তবিয়তে প্রধান শিক্ষিকা

» গাজীপুর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন এডভোকেট শামসুল হক

» ৬ষ্ঠ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের অভিষেক অনুষ্ঠিত

» মৌলভীবাজারে দৈনিক গণমুক্তি‘র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

» বুড়িগঙ্গা নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

» ফতুল্লায় ইয়াবা ট্যাবলেটসহ শান্ত ও বাবু গ্রেফতার

» আমতলীতে ৪০০ গ্রাম গাঁজা এবং ১০ পিস ইয়াবাসহ আটক ৩ কারবারী

» ফতুল্লায় যমুনা ডিপো গেইট থেকে তেলসহ চুরি হওয়া ট্যাকলড়ী কাচপুরে উদ্ধার

» ফতুল্লায় লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার চালক নিহত

» সাংবাদিকের বাবা-মায়ের উপর হামলা, রক্তাক্ত জখম

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, খ্রিষ্টাব্দ, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কুতুবপু‌রে ওস্তাদের পরকীয়ায় ধুলিসাৎ মুরিদের সংসার!

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

ফতুল্লায় একটি মাদ্রাসার লুলোপ দৃষ্টির কারনে সাজানো সংসার সংসার নষ্টসহ মানবেতর জীবন যাপন করছে এক ব্যাক্তি। একই মাদ্রাসার মুরিদের স্ত্রীর সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে স্বামীকে তালাক প্রধানে বাধ্য করা হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এমনকি লম্পট সুলতান মাহমুদ তার স্বার্থ হাছিলে ঐ নীরিহ ব্যাক্তির বিরুদ্ধে পরিবারকে প্রতিপক্ষ হিসেবে দ্বার করানো হয়েছে বলেও অভিযোগে প্রকাশ।

 

এমনকি, লম্পট সুলতান মাহমুদের কুটচালে সুখের সংসারে অশান্তি বিরাজ করতে থাকে। বেপরোয়া হয়ে উঠে স্ত্রী ও সন্তানরা। অব্যাহতভাবে স্ত্রী ও সন্তানদের অত্যাচারে মানবেতর জীবন পার করছে নুরু ওস্তাগার নামের এক ব্যাক্তি। পরিবারের সদস্যদের এমন অ-মানবিক ঘটনার বিচারের দাবিতে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করালেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ধরনের সহযোগিতা পাচ্ছেন না বলে তিনি অভিযোগ করেন।

 

এদিকে তিনি আরো অভিযোগ করেন, ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় অবস্থিত নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদের প্ররোচনায় তার সুখের সংসার ধ্বংসের পথে ধাবিত হয়েছে। এ ঘটনায় নুরু ওস্তাগার ফতুল্লা মডেল থানাসহ বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট “খ” অঞ্চল নারায়ণগঞ্জ আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে ভোক্তভোগী নুরু ওস্তাগার তার স্ত্রী হালিমা খাতুন ও অবাধ্য সন্তানসহ এবং উক্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সুলতান মাহমুদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করার দাবি জানান।

 

নুরু ওস্তাগার সাংবাদিকদের জানান, পারিবারিকভাবে বিয়ের কয়েক বছর তাদের দাম্পত্য জীবন ভালই চলছিল। এ সময় ফতুল্লার পাগলা নূরবাগ এলাকায় বসবাসকালে পরিচয় হয় বর্তমান নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতানের সাথে। পরিচয়ের সুবাধে তার বাড়ীতে নির্বিঘেœ যাতায়াত ছিল সুলতানের। একটা সময় সুলতানের পরামর্শে গত ১৪ বছর পূর্বে মাদ্রাসায় বসবাস শুরু করেন সে সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। তবে, হঠাৎ করেই মাদ্রাসার দাপ্তরিক বিভিন্ন কাজের দায়িত্ব দিয়ে সুলতান মাহমুদ দেশের বিভিন্ন জেলায় তাকে পাঠানো হত। কিন্তু নুরু ওস্তাগার ভূলেও ভাবেননি একটি মাদ্রাসার দায়িদ্বে থাকা মানুষ এতটা জঘন্য চরিত্রর হতে পারে!

 

লম্পট সুলতান মাহমুদের লুলোপ দৃষ্টি পড়ে তার স্ত্রী হালিমা খাতুনের উপর। মাদ্রাসার দায়িত্ব পালনের অজুহাতে দেশের বিভিন্নস্থানে তাকে পাঠিয়ে তার স্ত্রী হালিমা খাতুনের সাথে অবৈধ সর্ম্পকে গড়ে তুলতেন সুলতান মাহমুদ এমনটাই অভিযোগ করেন সাংবাদিকদের কাছে। দীর্ঘদীন ধরে চলে আসা এমন অসম প্রেম কাহিনী যে মুহুর্র্তে তিনি বুজতে পারেন” ঠিক সে সময় থেকেই তার স্ত্রী হালিমা খাতুন তাকে অবজ্ঞাসহ লম্পট সুলতান মাহমুদের কথামত বেপরোয়াভাবে চলাফেরা করতে থাকে। এমনকি শারীরিকভাবে তাকে নির্যাতনসহ বাড়ীতে থাকা নগদ সাড়ে ৭ লাখ টাকা এবং পৈত্রিক ভিটে বাড়ীও জোড়পূর্বক লিখে নেন। এক পর্যায়ে লম্পট সুলতান মাহমুদ তার পরকীয়া প্রেমিকা হালিমা খাতুনকে নিজের করে পাওয়ার জন্য নুরু ওস্তাগারকে তালাক দেয়ার ব্যবস্থা করে দেন বলেও অভিযোগ করা হচ্ছে।

 

দীর্ঘদীন ধরে চলে আসা অবৈধ এ সর্ম্পকের প্রতিবাদ করলে লম্পট সুলতান মাহমুদ ও হালিমা এবং নজরুল নামের এক ব্যাক্তিসহ তাকে মারধর করে বাড়ী থেকে বের করে দেন। একটা সময় তিনি জানতে পারেন, তার স্ত্রী হালিমা খাতুনসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের অভিযুক্ত সুলতান মাহমুদ কোথায়ও লুকিয়ে রেখেছেন।

 

এ ব্যাপারে উক্ত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদের কাছে নুরু ওস্তাগার তার পরিবারের খোঁজ নিতে গেলে কোন ধরনের তথ্যে দেয়াতো দূরে থাক উল্টো নুরু ওস্তাগারকে পরকীয়া প্রেমিক হালিমা খাতুনকে ভ‚লে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করে আসছে। বর্তমানে এ অবস্থার মধ্যদিয়ে অনেকটা মানবেতর জীবন পার করছে নুরু ওস্তাগার। এদিকে প্রতারনার মাধ্যমে জোড়পূর্বক তার পৈত্রিক সম্পত্তি এবং কষ্টার্জিত অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় লম্পট সুলতান মাহমুদ, স্ত্রী হালিমা খাতুন, নজরুলগণদের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচারের স্বার্থে ফতুল্লা মডেল থানায় একাধিক লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

 

সর্বশেষ বিচারের বানী নিয়ে পর্যায়ে ন্যায় বিচারের আশায় নারায়ণগঞ্জ জেলা জজ আদাতে নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদ, স্ত্রী হালিমা খাতুন এবং নজরুল গণদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে পাগলা নূরবাগ খাতুনে জান্নাত মহিলা মাদ্রাসার সভাপতি সুলতান মাহমুদ তার বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নুরু ওস্তাগার তার পরিবারকে ভরন পোষন না দেওয়ায় মানবিক দৃষ্টিতে আমরা মাদ্রাসায় আস্রয় দেই। তবে, বর্তমানে নুরু ওস্তাগারের পরিবারের সদস্যরা এখনো থাকেন না।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD