আমতলীতে গৃহবধূকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম’ তালাবদ্ধ ক‌রে রা‌খে ঘরে ‘৯৯৯’ ফোন পেয়ে পুলিশের উদ্ধার

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য লিজা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূকে দু’দফা নির্যাতনের করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে ‘৯৯৯’ থেকে ফোন পেয়ে আমতলী থানার পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

 

নির্যাতিত ওই গৃহবধূ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আঠারগাছিয়া গ্রামের মিলন তালুকদারের মেয়ে লিজা বেগমরে সাথে গুলিশাখালী ইউনিয়নের গুলিশাখালী গ্রামের মানিক গাজীর ছেলে নান্নু গাজীর ২০১৭ সারের ৫ জানুয়ারি বিয়ে হয়। বিয়ের সময় লিজার বাবা মিলন তালুকদার মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে ১ ভরি স্বর্নের কানের দুল, গলার চেইন ও জামাই নান্নু গাজীকে গলার চেইনসহ সংসার সাজানোর জন্য প্রায় ২ লক্ষ টাকার মালামাল কিনে দেন। যৌতুক লোভী স্বামী নান্নু গাজী লিজার বাবার বাড়ী থেকে ব্যবসার জন্য প্রায়ই টাকা এনে দিতে বলত। লিজাও সাধ্যমত বাবার নিকট থেকে টাকা এনে দিত। স্বামীর চাহিদা মত টাকা এনে না দিলেই স্ত্রী লিজার উপর চলত নির্যাতন।

 

শনিবার সকালে স্বামী নান্নু গাজী স্ত্রী লিজা বেগমকে তার বাবার বাড়ী থেকে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলেন। লিজা বাবার বাড়ি থেকে এত টাকা এনে দিতে অস্বীকার করলে স্বামী নান্নু গাজী লাঠি দিয়ে বেদম পিটিয়ে করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। মারধরে সহায়তা করেন নান্নুর বাবা মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী। যৌতুকের টাকা এনে না দেওয়া মঙ্গলবার সকালে স্বামী নান্নু গাজী শ্বশুর মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী মেহগিনি লাঠি দিয়ে দ্বিতীয় দফা পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

 

লিজার বাবা মিলন তালুকদার মেয়েকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে ঘরে তালবদ্ধ করে রাখার খবর পেয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে ‘৯৯৯’ ফোন করেন। সেখান থেকে আমতলী থানাকে জানালে আমতলী থানার এসআই ইমাম হোসেন গুলিশাখালী গ্রামের নান্নু গাজীর ঘর থেকে গৃহবধূ লিজাকে গুরুতর আহত অবস্থায় বিকেল সাড়ে ৪ টার সময় উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে এনে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।

 

আমতলী থানার এসআই ইমাম হোসেন জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহবধূ লিজা বেগমকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

অভিযুক্ত স্বামী নান্নু গাজী বলেন, যৌতুকের জন্য নয় পারিবারিক কলহের জন্য মারধর করেছি। চিকিৎসা না করিয়ে বাড়ীতে আটকে রাখার বিষয়ে জানতে চাইতে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

 

অভিযুক্ত নান্নু গাজীর বাবা মানিক গাজী বলেন, ছেলের বউ কথা শোনে না তাই মারধর করেছি। ছেলের বউকে মারতে পারেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেননি।

 

গৃহবধূ লিজার বাবা মিলন তালুকদার জানান, যৌতুকের জন্য নান্নু গাজী শ্বশুর মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী প্রায়ই আমার মেয়েকে মারধর করত। তারা দুধর্ষ প্রকৃতির লোক। তারা আমার মেয়ের নিকট ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে। টাকা না দেওয়ায় গত শনিবার এবং মঙ্গলবার গাছের ডাল দিয়ে দু’দফা পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। ভয়ে আমি ওই বাড়িতে মেয়েকে উদ্ধারের জন্য যাইনি। তাই ‘৯৯৯’ ফোন দিয়েছি। আমি এঘটনার বিচার চাই।

 

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান মুঠোফোনে জানান, ‘৯৯৯’ থেকে ফোন পেয়ে গুলিশাখালী গ্রামে পুলিশ পাঠিয়ে নির্যাতিত গৃহবধূ লিজা বেগমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» ফতুল্লা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে প্রবীণ সাংবাদিক নুরুল ইসলাম নুরু’র জন্মদিন পালন

» কোরবানির বাজার ধরতে প্রস্তুত ঝিকরগাছার “লাল বাদশা”

» সোনারগাঁয়ে ৩৬ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

» ফতুল্লায় ট্রাক ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

» বাংলাদেশ নিজের পায়ে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে: শামীম ওসমান

» কলারোয়া পৌর প্রেসক্লাবের কমিটি’র সভাপতি সরদার ইমরান ও সম্পাদক জুলফিকার আলী

» শার্শায় কিশোরীদের সচেতনতা মূলক প্রশিক্ষণ ও উপকরণ বিতরণ

» হজে গিয়ে ভিক্ষার ঘটনায় গ্রেফতার ১ বাংলাদেশি

» ট্রেনে কাটা পড়ে কলেজ শিক্ষার্তী নিহত

» আমতলীতে ফারিয়ার মানবন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই ২০২২, খ্রিষ্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আমতলীতে গৃহবধূকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম’ তালাবদ্ধ ক‌রে রা‌খে ঘরে ‘৯৯৯’ ফোন পেয়ে পুলিশের উদ্ধার

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য লিজা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূকে দু’দফা নির্যাতনের করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে ‘৯৯৯’ থেকে ফোন পেয়ে আমতলী থানার পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

 

নির্যাতিত ওই গৃহবধূ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আঠারগাছিয়া গ্রামের মিলন তালুকদারের মেয়ে লিজা বেগমরে সাথে গুলিশাখালী ইউনিয়নের গুলিশাখালী গ্রামের মানিক গাজীর ছেলে নান্নু গাজীর ২০১৭ সারের ৫ জানুয়ারি বিয়ে হয়। বিয়ের সময় লিজার বাবা মিলন তালুকদার মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে ১ ভরি স্বর্নের কানের দুল, গলার চেইন ও জামাই নান্নু গাজীকে গলার চেইনসহ সংসার সাজানোর জন্য প্রায় ২ লক্ষ টাকার মালামাল কিনে দেন। যৌতুক লোভী স্বামী নান্নু গাজী লিজার বাবার বাড়ী থেকে ব্যবসার জন্য প্রায়ই টাকা এনে দিতে বলত। লিজাও সাধ্যমত বাবার নিকট থেকে টাকা এনে দিত। স্বামীর চাহিদা মত টাকা এনে না দিলেই স্ত্রী লিজার উপর চলত নির্যাতন।

 

শনিবার সকালে স্বামী নান্নু গাজী স্ত্রী লিজা বেগমকে তার বাবার বাড়ী থেকে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলেন। লিজা বাবার বাড়ি থেকে এত টাকা এনে দিতে অস্বীকার করলে স্বামী নান্নু গাজী লাঠি দিয়ে বেদম পিটিয়ে করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। মারধরে সহায়তা করেন নান্নুর বাবা মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী। যৌতুকের টাকা এনে না দেওয়া মঙ্গলবার সকালে স্বামী নান্নু গাজী শ্বশুর মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী মেহগিনি লাঠি দিয়ে দ্বিতীয় দফা পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

 

লিজার বাবা মিলন তালুকদার মেয়েকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে ঘরে তালবদ্ধ করে রাখার খবর পেয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে ‘৯৯৯’ ফোন করেন। সেখান থেকে আমতলী থানাকে জানালে আমতলী থানার এসআই ইমাম হোসেন গুলিশাখালী গ্রামের নান্নু গাজীর ঘর থেকে গৃহবধূ লিজাকে গুরুতর আহত অবস্থায় বিকেল সাড়ে ৪ টার সময় উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে এনে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন।

 

আমতলী থানার এসআই ইমাম হোসেন জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহবধূ লিজা বেগমকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

অভিযুক্ত স্বামী নান্নু গাজী বলেন, যৌতুকের জন্য নয় পারিবারিক কলহের জন্য মারধর করেছি। চিকিৎসা না করিয়ে বাড়ীতে আটকে রাখার বিষয়ে জানতে চাইতে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

 

অভিযুক্ত নান্নু গাজীর বাবা মানিক গাজী বলেন, ছেলের বউ কথা শোনে না তাই মারধর করেছি। ছেলের বউকে মারতে পারেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেননি।

 

গৃহবধূ লিজার বাবা মিলন তালুকদার জানান, যৌতুকের জন্য নান্নু গাজী শ্বশুর মানিক গাজী, ভাসুর শাহীন গাজী ও মোখলেছ গাজী প্রায়ই আমার মেয়েকে মারধর করত। তারা দুধর্ষ প্রকৃতির লোক। তারা আমার মেয়ের নিকট ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করে। টাকা না দেওয়ায় গত শনিবার এবং মঙ্গলবার গাছের ডাল দিয়ে দু’দফা পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। ভয়ে আমি ওই বাড়িতে মেয়েকে উদ্ধারের জন্য যাইনি। তাই ‘৯৯৯’ ফোন দিয়েছি। আমি এঘটনার বিচার চাই।

 

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান মুঠোফোনে জানান, ‘৯৯৯’ থেকে ফোন পেয়ে গুলিশাখালী গ্রামে পুলিশ পাঠিয়ে নির্যাতিত গৃহবধূ লিজা বেগমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্ততি চলছে।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা সম্পাদক : ফয়সাল আহম্মেদ
সহ-বার্তা সম্পাদক : সেলিম হাওলাদার
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ০১৬৭৪৬৩২৫০৯
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD