কুতুবপুরে আলোচিত ব্যক্তি অপরাধের গডফাদার টেনু গ্রেফতার” অধরা বাচ্চু

উজ্জীবিত বাংলাদেশ:- নারায়ণগঞ্জের পাগলা কুতুবপুরে নিজেকে এমপি দাবি করা সেই আলোচিত ব্যক্তি অপরাধের গডফাদার শাহ আলম গাজী টেনুকে গ্রেফতার করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

 

চাঁদাবাজির দাবিতে সংখ্যালঘু পরিবারের তিন ভাইকে তুলে নিয়ে মারধর করার অভিযোগে বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ডিবি পুলিশের একাধিক টিম গিয়ে টেনুর নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

 

টেনু গাজীর গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) নূরে আলম। তিনি জানান, টেনু গাজীকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ গ্রেফতার করেছেন। তার বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। এরমধ্যে চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টার, ভূমিদস্যুতা, স্থানীয় নীরহ মানুষদের অত্যাচার নির্যাতনসহ আরও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

 

এর আগে একইদিন সন্ধ্যায় প্যারাগন নামে একটি মাল্টি পারপাসের সিইও কাজল কুমার রায়, সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং সিইও এর মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কে টেনু গাজী ৫ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে ব্যর্থ হওয়ায় তুলে নিয়ে মারধর করে আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ পাগলা বাজার এলাকা থেকে টেনু বাহিনীর হাত থেকে তাদের উদ্ধার করে।

 

এ ঘটনায় প্যারাগন মাল্টিপারপাসের চেয়ারম্যান রাজধানীর সবুজবাগ থানার ৬৪/এ মধ্য মাদারটেকের বাসিন্দা মৃত ফজলুল হকের ছেলে শাহজাহান ফতুল্লা মডেল থানায় উপস্থিত হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের জানান, দুজনকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এব্যাপারে শাজাহান নামে একজন ব্যবসায়ী অভিযোগ দায়ের করেছেন।

 

থানায় দায়েরকৃত লিখিত অভিযোগে প্যারাগন মাল্টিপারপাস কো অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান মোঃ শাহজাহান বলেন, বেশ কিছু দিন ধরেই পাগলা বাজার বহুমুখি সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ আলম গাজী টেনু ও তার সহযোগি মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে বাচ্চু আমাদের কাছ থেকে ৫ লাখ চাঁদা দাবী করে আসছিল। এমতাবস্থায় ফতুল্লা থানাধীন পাগলা শাখা থেকে লিমা নামে একজন গ্রাহক আমাদের কাছ থেকে ২৪ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। কিন্তু ঋণের টাকা নিয়মিত পরিশোধ না করে আমাদের বিভিন্ন ভাবে ঘুরাতে থাকে। এই বিষয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পাগলা শাখার ম্যানেজার ফারুক ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করে ছিলেন।

 

এর প্রেক্ষিতে ঋণ গ্রাহক লিমা অভিযুক্ত শাহ-আলম গাজী টেনু ও বাচ্চুর স্বরনাপন্ন হয়। এমতাবস্থায় টেনু ও বাচ্চু বিষয়টি সমাধানের জন্য আজ বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে উপস্থিত থাকার জন্য বলেন। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায়, তার বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায় পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে গেলে টেনু ও বাচ্চু পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী কৌশলে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক নিয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও সহ তার ৩ ভাইকে টেনুর বাড়ীতে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে উক্ত ঋণের ঘটনার কোন সমাধান না করে অভিযুক্ত টেনু ও বাচ্চু পূনরায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায় এর কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় টেনুর নির্দেশে বাচ্চুসহ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা তাহাদের জোরপূর্বক আটক করে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার রড ও লাঠি-সোটা দ্বারা এলোপাথারী মারধর করতে থাকে।

 

এসময় টেনু লোহার রড দিয়ে সিইও কাজল কুমার রায়কে হত্যার উদ্দেশ্যে স্বজোরে মাথায় আঘাত করে মাথা গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। বাচ্চু সিইও কাজল কুমার রায় এর সাথে থাকা নগদ ২০ হাজার টাকা টাকা ও ০১টি স্যামসাং মোবাইল জোরপূর্বক কেড়ে নেয়। টেনুর নির্দেশে বাচ্চু ও অজ্ঞাতনামারা সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় ও মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কেও হত্যার উদ্দেশ্যে পিটিয়ে রক্তাক্ত ও নীল-ফুলা জখম করে। একপর্যায়ে বিধান কৃষ্ণ রায় এর সাথে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা ও বিপ্লব চন্দ্র রায় এর কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার কেড়ে নেয়।

 

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বেশ কিছু গণমাধ্যমে পাগলা বাজার বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ আলম গাজী টেনুর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সেসব সংবাদে টেনুর নানা অপকর্ম উঠে আসে। তবে এসব সংবাদকে তিনি মিথ্যা দাবি করে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি নিজেকে স্থানীয় সাংসদের বন্ধু দাবি করেন এবং নিজেকে কুতুবপুরের এমপি হিসেবে জাহির করেন। তিনি জানিয়েছিলেন, তিনি অত্যন্ত ভদ্র ও ন্যায় পরায়ন একজন মানুষ। তার বিরুদ্ধে কোনো ধরণের অভিযোগ কোথাও নেই।

Facebook Comments

সর্বশেষ সংবাদ



» ধর্ষণে নজিরবিহীন রেকর্ড, ১০০ দিনেই শিকার ৩৯৬ নারী ও শিশু!!

» ‘আমিতো ভালা না, ভালা লইয়াই থাইকো’: ডিসি রাব্বী মিয়া

» চাঁনমারি বস্তিতে মাদক বিরোধী অভিযান চালায় ফতুল্লা থানা পুলিশ!

» সবচেয়ে অভিজ্ঞ এ বিশ্বকাপে বাংলাদেশই

» শ্রমিকের পা কেটে নিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা!

» আত্মগোপেনে নাজিম উদ্দিন, শামীম ওসমানের হুংকার !

» মোহাম্মদ আলী, আমগো এমপি শামীম ওসমান, এগুলির বেইল নাই: নাজিম উদ্দিন

» পাগলা নয়ামাটিতে নেশার টাকা না পেয়ে মাদকসেবীর আত্মহত্যা!

» গরমে যেসব ফল প্রশান্তিদায়ক

» অনলাইনে জিডি করবেন যেভাবে

প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ

সহ- সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

বার্তা সম্পাদক: সাদ্দাম হো‌সেন শুভ

উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

 

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
News: ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কুতুবপুরে আলোচিত ব্যক্তি অপরাধের গডফাদার টেনু গ্রেফতার” অধরা বাচ্চু

উজ্জীবিত বাংলাদেশ:- নারায়ণগঞ্জের পাগলা কুতুবপুরে নিজেকে এমপি দাবি করা সেই আলোচিত ব্যক্তি অপরাধের গডফাদার শাহ আলম গাজী টেনুকে গ্রেফতার করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

 

চাঁদাবাজির দাবিতে সংখ্যালঘু পরিবারের তিন ভাইকে তুলে নিয়ে মারধর করার অভিযোগে বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে ডিবি পুলিশের একাধিক টিম গিয়ে টেনুর নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

 

টেনু গাজীর গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) নূরে আলম। তিনি জানান, টেনু গাজীকে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ গ্রেফতার করেছেন। তার বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। এরমধ্যে চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টার, ভূমিদস্যুতা, স্থানীয় নীরহ মানুষদের অত্যাচার নির্যাতনসহ আরও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

 

এর আগে একইদিন সন্ধ্যায় প্যারাগন নামে একটি মাল্টি পারপাসের সিইও কাজল কুমার রায়, সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং সিইও এর মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কে টেনু গাজী ৫ লাখ টাকা চাঁদা চেয়ে ব্যর্থ হওয়ায় তুলে নিয়ে মারধর করে আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ পাগলা বাজার এলাকা থেকে টেনু বাহিনীর হাত থেকে তাদের উদ্ধার করে।

 

এ ঘটনায় প্যারাগন মাল্টিপারপাসের চেয়ারম্যান রাজধানীর সবুজবাগ থানার ৬৪/এ মধ্য মাদারটেকের বাসিন্দা মৃত ফজলুল হকের ছেলে শাহজাহান ফতুল্লা মডেল থানায় উপস্থিত হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের জানান, দুজনকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এব্যাপারে শাজাহান নামে একজন ব্যবসায়ী অভিযোগ দায়ের করেছেন।

 

থানায় দায়েরকৃত লিখিত অভিযোগে প্যারাগন মাল্টিপারপাস কো অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান মোঃ শাহজাহান বলেন, বেশ কিছু দিন ধরেই পাগলা বাজার বহুমুখি সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ আলম গাজী টেনু ও তার সহযোগি মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে বাচ্চু আমাদের কাছ থেকে ৫ লাখ চাঁদা দাবী করে আসছিল। এমতাবস্থায় ফতুল্লা থানাধীন পাগলা শাখা থেকে লিমা নামে একজন গ্রাহক আমাদের কাছ থেকে ২৪ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। কিন্তু ঋণের টাকা নিয়মিত পরিশোধ না করে আমাদের বিভিন্ন ভাবে ঘুরাতে থাকে। এই বিষয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পাগলা শাখার ম্যানেজার ফারুক ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করে ছিলেন।

 

এর প্রেক্ষিতে ঋণ গ্রাহক লিমা অভিযুক্ত শাহ-আলম গাজী টেনু ও বাচ্চুর স্বরনাপন্ন হয়। এমতাবস্থায় টেনু ও বাচ্চু বিষয়টি সমাধানের জন্য আজ বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে উপস্থিত থাকার জন্য বলেন। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায়, তার বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় এবং মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায় পাগলা বাজার সমবায় সমিতির অফিসে গেলে টেনু ও বাচ্চু পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী কৌশলে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক নিয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও সহ তার ৩ ভাইকে টেনুর বাড়ীতে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে উক্ত ঋণের ঘটনার কোন সমাধান না করে অভিযুক্ত টেনু ও বাচ্চু পূনরায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের সিইও কাজল কুমার রায় এর কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় টেনুর নির্দেশে বাচ্চুসহ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা তাহাদের জোরপূর্বক আটক করে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার রড ও লাঠি-সোটা দ্বারা এলোপাথারী মারধর করতে থাকে।

 

এসময় টেনু লোহার রড দিয়ে সিইও কাজল কুমার রায়কে হত্যার উদ্দেশ্যে স্বজোরে মাথায় আঘাত করে মাথা গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। বাচ্চু সিইও কাজল কুমার রায় এর সাথে থাকা নগদ ২০ হাজার টাকা টাকা ও ০১টি স্যামসাং মোবাইল জোরপূর্বক কেড়ে নেয়। টেনুর নির্দেশে বাচ্চু ও অজ্ঞাতনামারা সিইও এর বড় ভাই বিধান কৃষ্ণ রায় ও মেঝ ভাই বিপ্লব চন্দ্র রায়কেও হত্যার উদ্দেশ্যে পিটিয়ে রক্তাক্ত ও নীল-ফুলা জখম করে। একপর্যায়ে বিধান কৃষ্ণ রায় এর সাথে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা ও বিপ্লব চন্দ্র রায় এর কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার কেড়ে নেয়।

 

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি বেশ কিছু গণমাধ্যমে পাগলা বাজার বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি শাহ আলম গাজী টেনুর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সেসব সংবাদে টেনুর নানা অপকর্ম উঠে আসে। তবে এসব সংবাদকে তিনি মিথ্যা দাবি করে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি নিজেকে স্থানীয় সাংসদের বন্ধু দাবি করেন এবং নিজেকে কুতুবপুরের এমপি হিসেবে জাহির করেন। তিনি জানিয়েছিলেন, তিনি অত্যন্ত ভদ্র ও ন্যায় পরায়ন একজন মানুষ। তার বিরুদ্ধে কোনো ধরণের অভিযোগ কোথাও নেই।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



প্রকাশক : মো:  আবদুল মালেক
সম্পাদক : মো: সো‌হেল অাহ‌ম্মেদ

সহ- সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

বার্তা সম্পাদক: সাদ্দাম হো‌সেন শুভ

উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন

 

যোগাযোগ: বাড়ী- ৫০৬/এ, রোড- ৩৫,
মহাখালী, ডি ও এইচ এস, ঢাকা- ১২০৬,
ফোন: +৮৮ ০১৯৭৪ ৬৩২ ৫০৯, ৯৮৯১৮২৫,
বার্তা এবং বিজ্ঞাপন : + ৮৮ ০১৬৭৪ ৬৩২ ৫০৯।
News: ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD