শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

আজ ১৬ ডিসেম্বর। মহান বিজয় দিবসের ৪৯তম বার্ষিকী। বাঙালি জাতির জীবনে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের স্মৃতিবিজরিত এক দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্যদিয়ে বীরের জাতি হিসেবে পৃথিবীর মানচিত্রে আত্মপ্রকাশ ঘটে বাঙালির। জাতি অর্জন করে এক স্বাধীন সার্বভৌম ভূখণ্ড।

 

দীর্ঘ ৯ মাস বুকের তাজা রক্তে বাংলার মাটি সিক্ত হওয়ার পর ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীনতার স্বাদ গ্রহণ করে জাতি। বুকে ধারণ করে বিজয়ের লাল-সবুজ পতাকা। দিনটিকে ঘিরে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বীর সন্তানদের স্মরণ করছে গোটা দেশের মানুষ। বাঙালি জাতির জীবনে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের স্মৃতিবিজড়িত দিন মহান বিজয় দিবসে শহীদদের ভালোবাসায় সিক্ত করছেন আবাল-বৃদ্ধ-বনিতারা।

 

একাত্তরের এই দিনে অর্থাৎ ১৬ ডিসেম্বর বিকেলে তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বর্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করে যৌথ বাহিনীর কাছে। এর মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার রক্তিম সূর্যালোকে উদ্ভাসিত হয় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। সেই থেকে ১৬ ডিসেম্বর আমাদের বিজয় দিবস। প্রতিবছর ভাবগাম্ভীর্যে দিনটি সাড়ম্বরপূর্ণভাবে উদযাপন করা হলেও এবার করোনাভাইরাস নামে অদৃশ্য এক শক্তির বিরুদ্ধে লড়ছে মানুষ। ফলে কিছুটা সীমিত পরিসরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দিনটি উদযাপন করছে জাতি।

 

ভারত ভাগের পর ২৪ বছরের শোষণ-নির্যাতন ও বঞ্চনার পর জাতির ভাগ্যাকাশে এক নতুন সূর্যোদয় ঘটে। প্রভাব সূর্যের রক্তিম আভা ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে। নতুন বার্তা ছয়ে সমস্বরে একটি ধ্বনি গোটা মানচিত্রে প্রতিধ্বনিত হয়- ‘জয় বাংলা, বাংলার জয়, পূর্ব দিগন্তে সূর্য উঠেছে, রক্ত লাল, রক্ত লাল, রক্ত লাল’।

 

এদিকে বাঙালি তার আপন মহিমায় বিজয়ের দিবসের প্রথম প্রহর থেকেই জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ঢলও বাড়ছে। দিনের শুরুতেই রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রতিরক্ষা সচিব শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। স্মৃতিসৌধ ঘিরে ফুলের শ্রদ্ধায় নত হয়ে বীর শহীদদের স্মরণ করছেন সাধারণ মানুষ।

 

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা থেকে শুরু করে তরুণ যুবক, ছাত্র-শিক্ষক, সাংবাদিক, শিল্পী-বুদ্ধিজীবী, রাজনীতিক, কূটনীতিক, সমাজকর্মীসহ লাখো মানুষ জাতীয় স্মৃতিসৌধের বেদিতে ফুল দিয়ে মহান বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন।

 

কারো হাতে ফুল কারো হাতে লাল-সবুজের পতাকা। কারো আবার পোশাকে জাতীয় পতাকার রং। সকাল থেকেই জাতীয় স্মৃতিসৌধের পানে ছুটে চলেছেন শহীদদের ভালোবাসায় বরণ করতে। আজ সারা দিনই ৩০ লাখ বীর শহীদ ও সম্ভ্রম হারানো মা-বোনদের কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করবে জাতি।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

সর্বশেষ সংবাদ



» যশোরে টানা পঞ্চম বারের মতো শ্রেষ্ঠ ওসি হলেন সুমন ভক্ত

» আমতলীতে ভূমি জরিপে অনিয়ম দূর্নীতি বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল,স্মারকলিপি প্রদান

» নেত্রকোনা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশি ছাত্রনেতা মোঃ জাহিন খান

» আমতলীতে কন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের অধীন তিন দিন ব্যাপী মেলার উদ্বোধন

» বেনাপোলে পুলিশের অভিযানে মাদকসহ বিভিন্ন মামলার ১৪ জন আসামী আটক

» নেত্রকোণার হরিপুরে চলাচলের রাস্তা আটকে পাচঁ পরিবারকে অবরুদ্ধ!

» আমতলীতে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সকলের কর্মবিরতি, গ্রাহকরা ভোগান্তিতে!

» মিথ্যা সংবাদ’র প্রতিবাদে নেত্রকোণার মদনে সংবাদ সম্মেলন

» পাগলায় শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত

» ফতুল্লার মাদক ব্যবসায়ী কুমিল্লায় ৪০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার

সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

প্রকাশক : মো: আবদুল মালেক
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৬৭৪-৬৩২৫০৯, ০১৯১৮-১৭৮৬৫৯

Email : ujjibitobd@gmail.com

Desing & Developed BY RL IT BD
আজ : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, খ্রিষ্টাব্দ, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ

সংবাদটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে শেয়ার করুন

আজ ১৬ ডিসেম্বর। মহান বিজয় দিবসের ৪৯তম বার্ষিকী। বাঙালি জাতির জীবনে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের স্মৃতিবিজরিত এক দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্যদিয়ে বীরের জাতি হিসেবে পৃথিবীর মানচিত্রে আত্মপ্রকাশ ঘটে বাঙালির। জাতি অর্জন করে এক স্বাধীন সার্বভৌম ভূখণ্ড।

 

দীর্ঘ ৯ মাস বুকের তাজা রক্তে বাংলার মাটি সিক্ত হওয়ার পর ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীনতার স্বাদ গ্রহণ করে জাতি। বুকে ধারণ করে বিজয়ের লাল-সবুজ পতাকা। দিনটিকে ঘিরে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বীর সন্তানদের স্মরণ করছে গোটা দেশের মানুষ। বাঙালি জাতির জীবনে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের স্মৃতিবিজড়িত দিন মহান বিজয় দিবসে শহীদদের ভালোবাসায় সিক্ত করছেন আবাল-বৃদ্ধ-বনিতারা।

 

একাত্তরের এই দিনে অর্থাৎ ১৬ ডিসেম্বর বিকেলে তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বর্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী আত্মসমর্পণ করে যৌথ বাহিনীর কাছে। এর মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার রক্তিম সূর্যালোকে উদ্ভাসিত হয় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। সেই থেকে ১৬ ডিসেম্বর আমাদের বিজয় দিবস। প্রতিবছর ভাবগাম্ভীর্যে দিনটি সাড়ম্বরপূর্ণভাবে উদযাপন করা হলেও এবার করোনাভাইরাস নামে অদৃশ্য এক শক্তির বিরুদ্ধে লড়ছে মানুষ। ফলে কিছুটা সীমিত পরিসরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে দিনটি উদযাপন করছে জাতি।

 

ভারত ভাগের পর ২৪ বছরের শোষণ-নির্যাতন ও বঞ্চনার পর জাতির ভাগ্যাকাশে এক নতুন সূর্যোদয় ঘটে। প্রভাব সূর্যের রক্তিম আভা ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে। নতুন বার্তা ছয়ে সমস্বরে একটি ধ্বনি গোটা মানচিত্রে প্রতিধ্বনিত হয়- ‘জয় বাংলা, বাংলার জয়, পূর্ব দিগন্তে সূর্য উঠেছে, রক্ত লাল, রক্ত লাল, রক্ত লাল’।

 

এদিকে বাঙালি তার আপন মহিমায় বিজয়ের দিবসের প্রথম প্রহর থেকেই জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ঢলও বাড়ছে। দিনের শুরুতেই রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রতিরক্ষা সচিব শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। স্মৃতিসৌধ ঘিরে ফুলের শ্রদ্ধায় নত হয়ে বীর শহীদদের স্মরণ করছেন সাধারণ মানুষ।

 

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা থেকে শুরু করে তরুণ যুবক, ছাত্র-শিক্ষক, সাংবাদিক, শিল্পী-বুদ্ধিজীবী, রাজনীতিক, কূটনীতিক, সমাজকর্মীসহ লাখো মানুষ জাতীয় স্মৃতিসৌধের বেদিতে ফুল দিয়ে মহান বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন।

 

কারো হাতে ফুল কারো হাতে লাল-সবুজের পতাকা। কারো আবার পোশাকে জাতীয় পতাকার রং। সকাল থেকেই জাতীয় স্মৃতিসৌধের পানে ছুটে চলেছেন শহীদদের ভালোবাসায় বরণ করতে। আজ সারা দিনই ৩০ লাখ বীর শহীদ ও সম্ভ্রম হারানো মা-বোনদের কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করবে জাতি।

ফেসবুক মন্তব্য করুন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Click Here




সর্বশেষ সংবাদ



সর্বাধিক পঠিত



About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Contact Us

সম্পাদক : সো‌হেল আহ‌ম্মেদ
নির্বাহী সম্পাদক : কামাল হোসেন খান

প্রকাশক : মো: আবদুল মালেক
উপদেষ্টা সম্পাদক : রফিকুল্লাহ রিপন
বার্তা : + ৮৮ ০১৭৩১ ৬০০ ১৯৯।
editor.kuakatanews@gmail.com

প্রধান কার্যালয় : সৌদি ভিলা- চ ৩৫/৫ উত্তর বাড্ডা,
গুলশান, ঢাকা- ১২১২।
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : সেহাচর, তক্কারমাঠ রোড, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ।
ফোন : +৮৮ ০১৬৭৪-৬৩২৫০৯, ০১৯১৮-১৭৮৬৫৯

Email : ujjibitobd@gmail.com

© Copyright BY উজ্জীবিত বাংলাদেশ

Design & Developed BY Popular IT BD